আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তৃতীয়বারের মতো ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন মমতা ব্যানার্জী। বুধবার (৫ মে) বেলা পৌনে ১১টার দিকে রাজভবনে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কাছে শপথ নেবেন মমতা ব্যানার্জী। করোনা আবহের কারণে ছোট করেই হবে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান। তাই খুব সীমিত সংখ্যক লোককেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে এই অনুষ্ঠানে।

ভারতের গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে আবারও সরকার গঠন করতে যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে করোনা পরিস্থিতির জন্য ছোট পরিসরেই হবে মমতার শপথ অনুষ্ঠান। শপথ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী ও বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট তথা ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীসহ আরও কয়েকজন।

সোমবারই রাজ্যপাল ধনখড়ের সঙ্গে দেখা করে পদত্যাগপত্র জমা দেন মমতা ব্যানার্জী। রাজ্যে নতুন সরকার গঠনের আগের প্রথা মেনেই এই পদত্যাগ করেন তিনি। পরে টুইট করে রাজ্যপাল জানান, মুখ্যমন্ত্রী তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। তা গৃহীতও হয়েছে। তবে পরবর্তী সরকার গঠন হওয়ার আগ পর্যন্ত তাকেই দায়িত্ব নিতে অনুরোধ করা হয়েছে। ওই টুইটের সঙ্গে রাজভবনে মমতা এবং ধনখড়ের একটি ভিডিও শেয়ার করেন রাজ্যপাল। এর কিছুক্ষণ পরেই টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতার শপথ নেয়ার দিনক্ষণ ঘোষণা করেন রাজ্যপাল।

বিরোধী নেতা-নেত্রী ছাড়াও নিজের দলের বেশ কয়েকজনকেও আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। এর মধ্যে রয়েছেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর, ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, পৌর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম, দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, বিদায়ী মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, রাজ্যসভার সাংসদ সুব্রত বক্সীসহ একাধিক নেতা-নেত্রী।

error: Content is protected !!