রবিবার্তা ডেস্ক : “আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার” মহান স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র উপহার হিসেবে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ১১নং আব্দালপুর ইউনিয়নে ১৬টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য নির্মান করা হচ্ছে নতুন বাড়ি। রবিবার ১৭ জানুয়ারি আব্দালপুর ইউনিয়নের বাড়িগুলো পরিদর্শন করেন আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি। পরে এক আলোচনা সভায় হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে তারা নতুন গৃহ পাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই উদ্যোগ গ্রহন করেছেন। হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের মানবিক উদ্যোগ সারাবিশে^ বিরল এক দৃষ্টান্ত। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষেই সম্ভব এ ধরনের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে অবিচল থাকা। এই সরকারের আমলে প্রধনমন্ত্রীর উন্নয়ন ও মুজিব শতবর্ষে শেখ হাসিনার উপহার ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন। জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী ফারুকউজ্জামান ও শেখ হাসান মেহেদী, সাংগঠনিক সম্পাদক আমজাদ হোসেন রাজু ও মাযহারুল আলম সুমন। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরী। আরো উপস্থিত ছিলেন, আব্দালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আওয়ামীলীগের বর্ষীয়ান নেতা ইসহাক আলী মাস্টার, সদর উপজেলার এসিল্যান্ট সিফাত উদ্দিন, সদর উপজেলা কৃষি অফিসার বিষœু পদ সাহা, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলু, সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার সাইদুর রহমান, আব্দালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি শেখ আরব আলী ও সাধারন সম্পাদক গোলাম মোস্তফা। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন আব্দালপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলী হায়দার স্বপন, সভার পরিচালনা করেন, কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলী মুর্তজা খসরু। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল সিদ্দিকী, সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান অনিক, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আনিচুর রহমান আনিচ প্রমূখ। উল্লেখ, ভূমিহীন ও গৃহহীনদদের নতুন বাড়ি তৈরীর জন্য (দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রানালয়ের অর্থায়নে ) পুনর্বাসন প্রকল্প গ্রহণ করেছেন সরকার। নির্মাণাধীন বাড়িগুলি নিয়মিত পরিদর্শন সহ সচ্ছতার সাথে কাজ দেখাশোনা করছেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান আতা ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জুবায়ের হোসেন চৌধুরী। এছাড়াও আব্দালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী হায়দার স্বপন তিনি সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন। ইউএনও জুবায়ের হোসেন চৌধুরী জানান, মনোরম পরিবেশে সারি সারি নির্মান করা হচ্ছে বাড়িগুলো। যে সকল অসহায় ভূমিহীন পরিবারগুলোর জন্য এই বাড়ি নির্মান করা হচ্ছে তাদের মাঝে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। চোখে মুখে উচ্ছ্বাসের বহিঃপ্রকাশ। জুবায়ের চৌধুরী বলেন, নির্মানাধীন ঘরে বসবাস করার অধীর আগ্রহে স্বপ্ন দেখছে গৃহহীন পরিবারগুলো। “আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার” এই শ্লোগাণ কে সামনে রেখে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ১১নং আব্দালপুর ইউনিয়নের পশ্চিম আব্দালপুর দরগাপাড়া গ্রামের চরের মাঠে একই সারিতে নির্মান হচ্ছে ৯ টি বাড়ি, চরপাড়ায় ৬ টি বাড়ি ও পান্তাপাড়া এলাকায় ১ টি বাড়ি। ভূমিহীনদের আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার হিসেবে এসব বাড়ী নির্মাণ কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। নির্মান কাজ শেষ হলেই বাড়ি ও জমির দলিল পাবে যে সকল মানুষের ভিটে মাটি নাই। ইউএনও জুবায়ের চৌধুরী আরো জানান, উপজেলা প্রশাসনের সার্বক্ষণিক তদারকি ও তত্বাবধায়নে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর এ উপহার তুলে দেয়ার জন্য ইতোমধ্যে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরকে সম্পৃক্ত করে সদর উপজেলার আব্দালপুর, উজানগ্রাম পাটিকাবাড়ি ও গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়নে বাড়ির নির্মান কাজ চলমান রয়েছে। ঘর নির্মানের বিষয়ে জুবায়ের চৌধুরীর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, বাস্তবায়াধীন এসব প্রতিটি ঘরের জন্য মোট বরাদ্দ দেওয়া রয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। এতে রয়েছে একটি রান্নাঘর, একটি টয়লেট সহ সামনে খোলা বারান্দা। আমরা এ কাজে জনপ্রতিনিধিদেরকে সম্পৃক্ত করে সর্বোচ্চ সতর্কতা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্বপালনের চেষ্টা করেছি। আশা করছি আর অল্প সময়ের মধ্যেই অবশিষ্ট নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হবে। অসহায় মানুষগুলো বুঝে নিবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভালোবাসার উপহার। এলাকার প্রকৃত গৃহহীন ও ভূমিহীন উপকারভোগীদের মাঝে ঘর বন্টণের সকল প্রক্রিয়া সঠিকভাবে চুড়ান্ত করে তাদের কাছে চাবী হস্তান্তর করা হবে। ঘরের নির্মান কাজ দেখে উপকারভোগীরা প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নির্মিত বাড়িগুলো দেখে তাঁরা নিজের ঘরে, নিজের একটি জায়গায় বসবাস করার স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছে, কখন উঠবেন স্বপ্নের সেই ঘরে-এই ভাবনায় রয়েছে বিভোর। ভুক্তভোগী কয়েকটি পরিবারের সাথে কথা বললে তারা বলেন, এত সুন্দর ইটের বাড়িতে আমাদের বসবাসের সুযোগ হবে আমরা তা কখনোই ভাবিনী, তাছাড়া ইচ্ছে থাকলেও জায়গা কিনে বাড়ি তৈরির সামর্থ্য আমাদের নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ উপহার আমাদের জন্য শুধু মাথা গোঁজার ঠাঁই নয় বরং একটি স্বপ্নের বাস্তবায়ন। আমরা চির কৃতজ্ঞ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি সেই সাথে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি কুষ্টিয়া-৩ আসনের এমপি, জেলা প্রশাসক ও কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রশাসনকে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার সাইদুর রহমান বলেন, উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারদের জন্য নির্মাণাধীন ঘরগুলো

error: Content is protected !!