নিজস্ব প্রতিবেদক : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে অসহায় বিধবা নারী কমেলা খাতুনকে একটি ঘর প্রদান করলো সামাজিক স্বেচ্ছসেবী সংগঠন ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরাম।
কুমারখালী উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের কুশলীবাসা গ্রামের মোছাঃ কমেলা খাতুন স্বামী মৃত জোয়াদ আলীকে হারিয়েছেন ৪৮ বছর আগেই। বিয়ের চার বছর পর সাপের কামড়ে স্বামী মারা যায়। স্বামী মারা যওয়ার পর আর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ না হয়ে স্বামীর স্মৃতিকে আঁকড়ে ধরে বসবাস করেন স্বামীর ভিটেই। স্বামী ছিলেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। নিঃস্ব ৬৫ বছর বয়সী বিধবা কমেলা খাতুন ভাঙ্গাচুরা খুপরি ঘরে বসবাস করতেন। নেই কোন সন্তানাদীও।
বিষয়টি ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরামের নজরে আসলে ফোরামের সদস্যদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সহযোগীতায় ৭৫ হাজার টাকা ব্যয়ে দো‘চালা একটি ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হয়। ঘর পেয়ে বৃদ্ধা কমেলা অনেক খুশি। সে জানায়, অন্যের বাড়ী কাজ আর হাঁস-মুরগী পালন করে কোন মত জীবন কাটিয়েছি। এখন শরীরের শক্তি সামর্থ না থাকায় আর কাজ করতে পারিনা বলেও জানায় কমেলা।
সরকারী সাহায্য-সহযোগীতা কোন দিন জোটেনি কমেলা খাতুনের। চরম অসহায় অবস্থায় দিনানিপাত করছিল এই নারী। ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরামের উদ্যোগে দুই রুমের বসত ঘরটি পেয়ে কমেলা খাতুনের শেষ বয়সে একটু নিশ্চিৎ ঘুমানোর ব্যবস্থা হলো।
কুমারখালী (কুষ্টিয়া) ঃ বিধবা নারী কমেলা খাতুনকে ঘর প্রদান করলো ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরাম

error: Content is protected !!