কুমারখালী প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ভাই-বোন মিলে এক মোবাইল মেকারকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। শনিবার রাতে কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নের মালিথাপাড়া আবাসন প্রকল্পে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। পুলিশ এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঘাতক দুই ভাই-বোনকে আটক করেছে।
নিহত যুবক কয়া মালিথা পাড়া আবাসন প্রকল্পের বাবলু মালিথার ছেলে তৌকির (২৫)। পেশায় তিনি একজন মোবাইল মেকার।
নিহতের চাচাত ভাই শরিফুল ইসলাম জানান, কয়েকদিন পূর্বে উত্তর কয়া আবাসনের আজবাহারের ছেলে বিপ্লব ওরফে বিল্লু (২০) তৌকিরের কাছে একটি মোবাইল ফোন মেরামত করতে দেয়। তৌকির মোবাইল ফোনটি মেরামত করে তাকে মোবাইলটি ফেরত দিলেও বিল্লু মোবাইল ফেরতের বিষয়টি অস্বীকার করে । এ ঘটনা নিয়ে উভয়ের মধ্যে কয়েকদিন ধরে বাকবিতন্ডা চলছিল । এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার মাগরিবের নামাজের পর বিল্লু ও তার বোন যুথি খাতুন তৌকিরের বাড়িতে এসে মোবাইল ফেরত চায়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে বিল্লু ও তার বোন তৌকিরকে বটি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এলাকাবাসী মুমূর্ষ অবস্থায় তৌকির কে উদ্ধার করে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এলাকাবাসী জানায়, বিল্লু মাদকাসক্ত। তার বিরুদ্ধে এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, মোবাইল ফেরত দেয়াকে কেন্দ্র করে বিবাদের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে । হত্যাকান্ডের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘাতক দুই ভাই-বোনকে আটক করেছে।

error: Content is protected !!