নিজস্ব প্রতিবেদক : সোমবার ৩০ মার্চ সন্ধা ৭টায় কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের অন্জনগাছি গ্রামে রাজিয়া খাতুন(২২) নামের এক নারির গলায় ওড়না পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে স্বামীর বাড়ির লোকজন।

পরবর্তীতে তাকে স্বামীর বাড়ির লোকজন উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে রাজিয়া খাতুন অন্জনগাছি গ্রামের ছোয়ানিপাড়ার ফরমান আলীর মেয়ে। দুই বছর আগে একই গ্রামের জোয়ার্দার পাড়ার রবজেল মালের ছেলে সলক(২৫) এর সাথে তার বিয়ে হয়। নিহত রাজিয়া খাতুন তিন মাসের অন্তঃসত্তা ছিলো বলে জানিয়েছেন তার পরিবার।

এদিকে নিহতের পিতা ফরমান আলী বলেন, আমার মেয়েকে তার শাশুড়ি ও স্বামী অত্যাচার করত। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছিল বলে অভিযোগ করেছেন ।

এদিকে তার স্বামীর সাথে কথা বলে জানা যায়, তার স্ত্রীর অনেক জিদ ছিল ।প্রতিদিনের ন্যায় সেদিনও স্বাভাবিকভাবে তারা জীবন-যাপন করেছে। কিন্তু কেন আত্মহত্যা করল সে বলতে পারছে না।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বলেন এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। এবং ময়নাতদন্ত শেষে লাশ দাফন করা হয়েছে। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।

error: Content is protected !!