মিরপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার মিরপুরে রঙ্গিলা খাতুন (৩৬) নামের এক গৃহবধূকে কুঁপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (১৪ মার্চ) বেলা ১১ টায় মিরপুর উপজেলার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের নওদাপাড়া এলাকার গঙ্গা-কপোতাক্ষ (জিকে) ক্যানেল’র পাশ্ববর্তী একটি তামাক ক্ষেতের মধ্য থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত রঙ্গিলা খাতুন কুষ্টিয়ার ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের নওদাপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হাসেমের মেয়ে এবং একই এলাকার শফিকুল ইসলামের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, তিন সন্তানের জননী রঙ্গিলা খাতুন শনিবার বিকেলে মাঠে তার ছাগল আনতে যান। এর পর থেকে তিনি নিঁোজ ছিলেন। সকালে প্রতিবেশি আরিফুল ইসলাম মাঠে ঘাস কাটতে গেলে মনিরুল ইসলাম নামের এক কৃষককের তামাক ক্ষেতের মধ্যে রঙ্গিলা খাতুনের মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহতের স্বামী শফিকুল ইসলাম জানান, রঙ্গিলার সাথে কারো কোন শত্র“তা ছিলো না। আমরা বেশ সুখে ছিলাম। পারিবারিক ভাবেও কোন কলহ-বিবাদ ছিলো না। তবে কারা এমন কাজ করছে বুঝতে পারছি না।

এলাকাবাসী জানান, নিহত রঙ্গিলা খাতুন একজন সহজ-সরল মানুষ ছিলেন। সারাদিন মাঠে ছাগল চড়িয়ে বেড়াতেন। তবে তিনি একটি মামলার স্বাক্ষী ছিলেন বলে জানা যায়।

মিরপুর থানার (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। মাথাসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। তবে কারা কি কারণে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে এ ব্যাপারে পুলিশ এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি। পুলিশ ইতোমধ্যে এই হত্যা রহস্য উদঘাটনে মাঠে নেমেছে।

error: Content is protected !!