নিজস্ব প্রতিবেদক : কুষ্টিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে অনুমোদন বিহীন ভেটেনারী ওষধ তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়ে কারখানাটি সিলগালা করে দিয়েছেন। সেই সাথে কারখানার মালিককে দশ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য করেছেন। জানা যায়, কুুমারখালী উপজেলার যদুবয়রা ইউনিয়নের মৃত দাসরত মজুমদারের ছেলে রাজীব মজুমদার দীর্ঘদিন ধরে অনুমোদন বিহীন কারখানাটি পরিচালনা করে ভেটেনারী ওষধ তৈরি করে আসছিলেন। শনিবার (পহেলা মা) দুপুরে কুমারখালী উপজেলার ঝাওতলা গ্রামে কুমারখালী
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রাজীবুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত রেমিকো ফার্মা হেলথ ডিভিশন নামের ওই ভেটেনারী ওষধ কারখানায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এ সময় কুমারখালী প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা নুরে আলম সিদ্দিকী উপস্থিত ছিলেন। অভিযানের পর ভ্রাম্যমান দালতের ম্যাজিষ্ট্রেট রাজীবুল ইসলাম খান জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাজীব মজুমদা রেমিকো ফার্মা নামের অনুমোদন বিহীন এই কারখানাটিতে মেয়াদোত্তীর্ণ কাঁচামাল দিয়ে নোংরা পরিবেশে শ্রমিকদের দ্বারা এসব ভেটেরিনারি ওষুধ তৈরি করে আসছিল। অভিযানে অবৈধভাবে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ তৈরির আলামত পান ভ্রাম্যমান আদালত। ওষুধগুলোর মধ্যে রয়েছে রেমিটপ পাউডার,রেমিজেন্ট,এনজাইম পাউডার,হান্ডেড- এ আই,জিংকোভেট। এছাড়াও গবাদিপশু জন্য বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন এই কারখানাটিতে পাওয়া যায়। এ সময় রেমিকো ফার্মা এসব মেডিসিন উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতের জন্য ঔষধ বিভাগের কোন
নিবন্ধন দেখাতে পারেনি। ফলে এসব অপরাধ আমলে নিয়ে রেমিকো ফার্মা কে ২০০৯ সালের ভোক্তা অধিকার
সংরক্ষণ আইন ৫১ ধারায় মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ তৈরি ও বিক্রির দায়ে ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড এবং কারখানাটি সিল গালা করে দেন।

error: Content is protected !!