নিজস্ব প্রতিবেদক : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সেলোইঞ্জিন চালিত অবৈধ ইট টানা গাড়ীর ধাক্কায় ব্রাক স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির একজন ছাত্র নিহত এবং আরেকজন আহত হয়েছে।

গত শনিবার বিকেলে চরসাদিপুর ইউনিয়নের ভৈরবপাড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জিহাদ (১০) ভৈরবপাড়া গ্রামের জহুরুল মন্ডলের ছেলে। এবং আহত ইমরান (৮) একই এলাকার মুক্তার আলীর ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেল আনুমানিক ৪ টার দিকে বাইসাইকেল চালিয়ে জিহাদ ও ইমরান আত্মীয় বাড়িতে যাওয়ার পথে চর সাদিপুর ইউনিয়নের ভৈরবপুর এলাকার লিচু বাগান নামক স্থান থেকে অবৈধ ইট টানা গাড়ী পিছন থেকে ধাক্কা দেয়। ধাক্কায় দুই স্কুল ছাত্র গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পাবনা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জিহাদকে মৃত ঘোষণা করেন এবং আহত ইমরান চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এবিষয়ে চর সাদিপুর ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, ইট বোঝায় লাটাহাম্বার ধাক্কায় দুইজন আহত হলে হাসপাতালে নেওয়া হয়।পরে জিহাদ নামের একজন মারা যায়।অপরজনকে ভর্তি করা হয়।

কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান বলেন, ইট টানা গাড়ীর ধাক্কায় একজন স্কুল ছাত্র নিহত ও আরেক ছাত্র আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

error: Content is protected !!