মিরপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার মিরপুরে এক ক্ষুদ্র কৃষকের বসত বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সবকিছু ভস্মিভুত হয়েছে। এঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ওই কৃষক পরিবারের সবকিছু পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে এবং এখন পরিবারের সদস্যরা খোলা আকাশের নীচে অবস্থান বলে দাবি তাদের।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ৯টার সময় কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের মোহদীপুর ঈদগাহপাড়া এলাকার কৃষক তৈয়ব আলীর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

তৈয়ব আলী বলেন, সকালে হঠাৎ করেই ঘরে আগুন লেগে যায়। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে রান্না ঘরে রান্না করেছে তারপর আর চুলা জ্বলেনি। এছাড়া বিদ্যুৎ থেকেও আগুন লাগেনি। তাহলে কিভাবে আগুন লাগলো তাও বুঝতে পারছি না।

তিনি বলেন, চারটি শোবার রুম ও রুমে থাকা সকল আসবাবপত্র, একটি গোয়াল ঘর, একটি ছাগলসহ রান্না ঘর পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে।

স্থানীয় আমলা ইউপি সদস্য আমান উল্লাহ বলেন, আগুনে পুড়ে ঐ পরিবারের প্রায় সব কিছুই শেষ। তৈয়ব আলী একজন বর্গাচাষী। নিজের বলতে বাড়িতে যা কিছু ছিলো তা সব পুড়ে নি:শেষ। এখন ওর পরিবার পরিজন নিয়ে হয়ত বেশ কিছুদিন অন্যের সাহায্য ছাড়া বাঁচার পথ নেই।

মিরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর স্টেশন অফিসার রুহুল আমিন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, রান্না ঘর থেকেই এই আগুনের সুত্রপাত হতে পারে। বর্তমানে ঐ বাড়িটির ইটের দেওয়াল ছাড়া প্রায় সব কিছুই পুড়ে গেছে। তাৎক্ষনিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নিরূপন সম্ভব হয়নি। তবে কয়েক লাখ টাকার মালামালের ক্ষয়ক্ষতির দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত তৈয়ব আলী।

error: Content is protected !!