ইবি প্রতিনিধি : গত সোমবার রাত সাড়ে আটটার সময় কুষ্টিয়ার ইবি থানাধীন পাটিকাবাড়ী বাজারে পল্লী বিদ্যুতের ছেঁড়া তার গলায় পেঁচিয়ে আহত হয়েছেন হালসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞানের শিক্ষক মাহাবুল ইসলাম (৩৫)।এসময় তিনি চরমভাবে বিদ্যুতায়িত হন।

সূত্র মতে জানা যায়, পাটিকাবাড়ী বাজারে পাটিকাবাড়ী বিএনপি’র সভাপতি সেলিমের বাড়ির পাশে গতকাল রাতে মিনিস্টার মাইওয়ান শো-রুমের ফ্রিজবাহী ট্রাকের সঙ্গে বেঁধে পল্লী বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে আনুমানিক ৪-৪.৫’ উচ্চতায় ঝুলতে থাকে।মাহাবুল মাস্টার অন্ধকারে তার দেখতে না পেয়ে মোটর সাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় তা গলার সাথে পেচিয়ে যায়। এসময় তিনি চরমভাবে বিদ্যুতায়িত হন।তাঁর মোটর সাইকেলটি ছিটকে চলে যায় এবং তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।এমতাবস্থায় পাশেই চা-য়ের দোকানে অবস্থান করা লোকজন দৌড়ে এসে তাঁকে উদ্ধার করে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান এবং প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করান।

মাহাবুল মাস্টার বলেন,আমি মোটরসাইকেল নিয়ে ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম। অন্ধকারে ছেঁড়া তার দেখতেই পাইনি।আকস্মিকভাবে ওই তার আমার গলায় পেঁচিয়ে যায়। আমি চরমভাবে বিদ্যুতায়িত হই এবং ছিটকে পড়ি।আমার গাড়ি একা একাই চলতে থাকে।পাশের চা-য়ের দোকান থেকে লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান এবং চিকিৎসা দেন।এখন কিছুটা সুস্থ আছি।আমি ওই উদাসীন ট্রাকচালকের বিচার চাই।
উপস্থিত লোকজন বলেন,ট্রাকচালকের এমন উদাসীনতা মোটেই কাম্য ও গ্রহণযোগ্য নয়।ট্রাকটির ডালা অত্যাধিক উঁচু হওয়ায় বিদ্যুতের তারের সাথে বেঁধে যাওয়া এবং তার ছেঁড়া স্বাভাবিক। কিন্তু চালক তা আশেপাশের লোকজনকে জানাতে পারতেন।আজ মাহাবুল মাস্টার কোনোমতে বেঁচে গেছেন।দুর্ঘটনা এরচেয়েও ভয়াবহ হতে পারতো!রাতের আধারে পথচারী কেউ বিদ্যুতায়িত হয়ে মারাও যেতে পারতো।আমরা এর একটা বিহিত চাই!

উল্লেখ্য,ফ্রিজবাহী ট্রাকের সঙ্গে বেঁধে তার ছেঁড়ার বিষয়টি ওই ট্রাকচালকের সঙ্গে ফোনে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।

error: Content is protected !!