দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অবেশেষে তারকাটার বেড়ার বন্দীদশা থেকে মুক্ত হয়েছে ৪ পরিবার। গতকাল সোমবার বিকেলে দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাগণ ও জনপ্রতিনিধি ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে উভয় পক্ষের সাথে কথা বলে সমস্যার সমাধান করেন।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামে লালন মন্ডল নামে এক ব্যক্তি তারকাটার বেড়া দিয়ে ওই এলাকার চার পরিবারকে অবরুদ্ধ করে রাখেন। ফলে তাদের চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। গত এক সপ্তাহ ধরে চার পরিবার বন্ধী অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করার সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে তা প্রশাসনের নজরে আসে। গতকাল বিকেলে দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন, দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার, দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর আলী ও খলিসাকুন্ডি ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উদ্ভূত সমস্যার সমাধান করেন। এসময় চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে তারকাটার বেড়া দেওয়া জমির মালিক লালন মন্ডল ও বন্দী পরিবারের জিয়াউর রহমান সহ উভয় পক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলে সমস্যার সমাধান করে বন্দীদশা থেকে ৪ পরিবারকে মুক্ত করা হয়। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে উভয়পক্ষের সমঝোতায় চলাচলের রাস্তার জন্য ৬ফিট বা দুই কাঠা সমপরিমান জমি ভূক্তভোগী পরিবারগুলো জমির মালিকের কাছ থেকে ক্রয় করবে। এক্ষেত্রে উভয়পক্ষ একমত হয়ে আগামী সপ্তাহে জমি রেজিষ্ট্রি করার সিদ্ধান্ত হয়।

দৌলতপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আজগর আলী জানান, স্থানীয় জনগন ও দুইপক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলে সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। জমির মালিক রাস্তার জন্য দুই কাঠা পরিমান জমি ন্যায্য মূল্যে বিক্রয় করবে এবং ভূক্তভোগী পরিবারগুলো তা ক্রয় করেব। আগামী সপ্তাতে জমি রেজিষ্ট্রি হবে। এনিয়ে আর কোন বাঁধা বা চলাচলের সমস্যা থাকবে না।

বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা ছাড়াও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

error: Content is protected !!