স্টাফ রিপোর্টার : ধূমপান মুক্ত সমাজ গঠনে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে কুষ্টিয়ার কৃষিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান অ্যাগ্রো অ্যালকেমি এবং সাহিত্যের কাগজ ‘তিথিয়া’।

বিশ্ব তামাক মুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে সোমবার (৩১ মে) এক আলোচনা সভা থেকে এই আহ্বান জানানো হয়। বিকেলে ভ্যার্চ্যুয়ালি এই সভার আয়োজন করে ‘অ্যাগ্রো অ্যালকেমি’র শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘রেইনবো বুকেট’ টিম এবং কুষ্টিয়া থেকে প্রকাশিত সাহিত্যের কাগজ ‘তিথিয়া’।

আলোচনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের রিসার্স ফেলো হাসান নিটোল, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর ওওএসসি শিক্ষা কর্মসূচির ম্যানেজার (অডিও ভিডিও ও ডকুমেন্টেশন) শারীফ অনিবার্ণ, মিরপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি কাঞ্চন কুমার এবং তামাক নিয়ন্ত্রণে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের জন্য প্রজ্ঞা মিডিয়া এ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত গণমাধ্যমকর্মী ইমাম মেহেদী।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, কঠোর আইন প্রয়োগের পাশাপাশি মূল্যবোধ জাগ্রতকরণ এবং সামাজিক সচেতনতায় ঐক্যবদ্ধভাবে ধূমপান-বিরোধী আন্দোলন সফল করা সম্ভব। এক্ষেত্রে সচেতন ছাত্র সমাজের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। সুস্থ জীবনই সুখী জীবন। সুস্থ থাকতে হলে ধূমপান ত্যাগ করতে হবে। তাই ধূমপান বিরোধী প্রচার প্রচারনার মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে সচেতনতা বৃদ্ধির উপর আরও গুরুত্ব দেওয়া উচিত এবং অ্যাগ্রো অ্যালকেমি সেই কাজটিই করছে।

তারা বলেন, বাংলাদেশে ১৫ বছরের বেশি বয়স্ক জনগোষ্ঠীর ৪৩ দশমিক ৩ শতাংশ তামাক ব্যবহার করে এবং ৬৩ শতাংশ মানুষ কর্মক্ষেত্রে পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হয়। প্রচন্ড ইচ্ছা শক্তি ও দৃঢ় মনোবলই পারে ধূমপান পরিত্যাগে কার্যকর ভূমিকা রাখতে। শিক্ষার্থীদের জন্য এক্ষেত্রে সহপাঠী ও বন্ধু বান্ধবরাই পারে অগ্রনী ভূমিকা রাখতে। আমারা চাই যুব ও শিক্ষার্থীদের মাঝে সামাজিক দায়বদ্ধতা ও মূল্যবোধ সৃষ্টি হোক এবং তারা সচেতন নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠুক। অ্যাগ্রো অ্যালকেমির রেইনবো বুকটে টিমও তেমন লক্ষ্যেই কাজ করছে, যা সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য।

এ সময় বক্তারা কিশোর ও যুব সমাজকে তামাকজাতে কুফল সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি টোবাকো কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ ও সব প্রকার তামাকজাত দ্রব্যের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

সভা সঞ্চালনা করেন অ্যাগ্রো অ্যালকেমির প্রধান নির্বাহী এবং তিথিয়া’র সম্পাদক হোসাইন মোহাম্মদ সাগর। সভায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন তিথিয়ার সম্পাদনা সহকারী রাসেল আহমেদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কবি ইমরান মাহফুজ, গণমাধ্যম কর্মী জাহিদ হাসান, রুবেল আহমেদ নান্নু, মেজবাহ উদ্দিন পলাশ, রেইনবো বুকেট টিমের সমন্বয়কারী আসাদুজ্জামান রতন, ফাতেমাতুজ্জহুরা ইভা, আসমাউল হুসনা অনন্যা, নাজিফুল হক, নাজিবুল হক অংকুর, শোয়েব মল্লিকসহ বিভিন্ন সংস্কৃতিমনা ব্যক্তি ও শিক্ষার্থীরা।

error: Content is protected !!