হাবিবুর রহমান ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে ডিম বোঝায় শ্যালো ইঞ্জিন চালিক আগলামন (স্থানীয় যান) ছিনতাই চক্রের মুল হোতাসহ ৭জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানায় কুষ্টিয়ার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (মিরপুর সার্কেল) আজমল হোসেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার চড় ঘোস্তা এলাকার আলতাফ হোসেন ব্যাপারীর ছেলে ট্রাক চালক লিটন ব্যাপারী (২০), বরিশাল জেলার আগুন ঝরা উপজেলার চেঙ্গুটিয়া এলাকার মৃত মহব্বত আলীর ছেলে ওয়াহিদ আলম (৩৮), মাগুরা সদর উপজেলার রাওতলা এলাকার হাফিজার বিশ্বাসের ছেলে সাইদুল ইসলাম (৩৫), পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার চর কারিগর এলাকার ইজাব আলীর ছেলে শুকনাল ওরফে শুকুর আলী (২৫), বাবুলচারা এলাকার আব্দুল ওহাব খাঁনের ছেলে আরাফাত হোসেন (১৯), বাশের বাঁধা এলাকার আপাল প্রামানিকের ছেলে ইমন প্রামানিক (১৯), নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার মাসকা পশ্চিমপাড়া এলাকার কাজিম উদ্দিনের ছেলে ওসমান গণি (৩০)। কুষ্টিয়ার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আজমল হোসেন জানান, গত ৩১ জানুয়ারি, ২০২১ তারিখ রাত সাড়ে তিনটার সময় পাবনা থেকে ছেড়ে আসা একটি ডিমবাহী শ্যালো ইঞ্জিন চালিক আগলামন কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার নয় মাইল এলাকা থেকে ডিমসহ ছিনতাই হয়। এ ঘটনায় শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মিরপুর থানায় পেনাল কোর্ডের ৩৯২ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নম্বর- ২৮, তারিখঃ ৩১/০১/২০২১। এ ঘটনায় মিরপুর থানা পুলিশ লালন শাহ সেতুর টোল প্লাজার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ট্রাকের ড্রাইভার লিটন ব্যপারীকে গ্রেফতার করে। পরে তার দেওয়া তথ্য মতে বিভিন্ন জেলায় অভিযান চালিয়ে ঐ চক্রের মোট ৭জনকে গ্রেফতার করা হয়। সেই সাথে বাঁকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ময়মনসিং জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার গলগন্ড গ্রামের পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে থেকে ছিনতাই হওয়া গাড়ীটি উদ্ধার করা হয়েছে। সেইসাথে ঐ চক্রটি দীর্ঘদিন যাবৎ কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন জেলায় এ ধরনের অপরাধ করে আসছিলো। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে তাদের আদালতে সোপর্দ্ধ করা হবে। আসামীদের মধ্যে ১জন স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দী দেওয়ার কথা রয়েছে বলেও জানায় পুলিশের এই কর্মকর্তা।

error: Content is protected !!