রবিবার্তা ডেস্ক : “শ্রমিক বাঁচাও, শিল্প বাঁচাও” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে কুষ্টিয়া জেলা বিড়ি শ্রমিক পরিষদের আয়োজনে কুষ্টিয়ায় বিড়ি শিল্প শ্রমিকদের ৬ দফা দাবি সহ ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটে বৃদ্ধিকৃত মূল্যস্তর প্রত্যাহারের দাবিতে কুষ্টিয়ায় বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১০ টায় শহরের পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সহ সভাপতি মোঃ নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন , জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ গোলাম মোস্তফা, সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মোঃআনারুল ইসলাম, জেলা শ্রমিক লীগের সহ-সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ আতিকুর রহমান, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি মোঃ আমিন উদ্দিন (বিএসসি), বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহমান, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নেত্রকোনা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুর গফুর। এসময় বক্তারা শ্রমিকদের দাবি তুলে ধরে বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ মাদার অফ হিউম্যানিটি এর নিকট বিড়ি শ্রমিক ও বিড়ি শিল্প রক্ষার জন্য বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের দাবি – ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটে বিড়ির উপর বৃদ্ধিকৃত ৪ টাকা মূল্যস্তর প্রত্যাহার করা, বিড়ির উপর অগ্রিম ১০% আয় কর প্রত্যাহার করতে হবে,বাংলাদেশের সিগারেট যতদিন থাকবে বিড়িও ততদিন থাকবে,বিড়িতে শুল্ক কমিয়ে শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি করতে হবে, বিড়ি শিল্পকে ভারতের ন্যায় কুটির শিল্প ঘোষণা করতে হবে, সিগারেটের ন্যায় বিড়িতেও তিনটি মূল্যস্তর করতে হবে, সিগারেট ও বিড়ির শুল্ক বৃদ্ধির বৈষম্য দূর করতে হবে। যেমন: বিড়িতে ৪ টাকা শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়েছে অপরদিকে মধ্যম স্তরের সিগারেটে কোন শুল্ক বৃদ্ধি করা হয়নি, বিড়ি শিল্প বন্ধের ষড়যন্ত্র থেকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে বিরত থাকতে হবে, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো এবং আ্যান্টি টোব্যাকো মিডিয়া অ্যালায়েন্স আত্মা এর দালালি বন্ধ করতে হবে। এসময় বক্তারা আরও বলেন,বর্তমানে একশ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী অনলাইনে বিড়ির ভুয়া লাইসেন্স করে নকল ব্যান্ডরোল লাগিয়ে সাত টাকা, আট টাকা দামে বাজারজাত করিতেছে। যেখানে একটি ব্যান্ডরোলের রাজস্ব (মূল্য ৮ টাকা ০.৪০ পয়সা)সেখানে তারা সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে কম দামে নিম্নমানের তামাক দিয়ে অস্বাস্থ্যকর বিড়ি তৈরি করে লোভনীয় অফার লটারি দিয়ে বাজারজাত করছে ইহাতে একদিকে সরকারের রাজস্ব ঘাটতি হচ্ছে অন্যদিকে জনগণের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে । বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিড়ি শ্রমিক সমাবেশে কয়েকটি জেলার ৬ শতাধিক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন। বিড়ি শ্রমিক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক মোঃ হারিক হোসেন।

error: Content is protected !!