ইবি প্রতিনিধি : হল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়না চত্ত্বর থেকে এ আন্দোলন শুরু করে তারা।

জানা যায়, হল খোলার দাবিতে একদফা দাবি নিয়ে বেলা সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়না চত্ত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে আন্দোলকারীরা।

পরে মিছিলটি সামনের দিকে অগ্রসর হতে থাকে। একপর্যায়ে মিছিলটি বিভিন্ন আবাসিক হল প্রদক্ষিণ শেষে উপাচার্যের বাসভবনে গিয়ে অবস্থান কর্মসূচিতে মিলিত হয়।

এসময় তারা- ‘এক দফা, এক দাবি, আজকে হল খুলে দিবি’, ‘শিক্ষকরা ভেতরে আমরা কেন বাহিরে’- স্লোগানে এলাকা মুখরিত করে তোলেন। এসময় সেখানে হল খোলার দাবিতে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রায়হান বাদশা রিপন, জি কে সাদিক ও মোস্তাক আহমেদ। এসময় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘দেশের কোথাও করোনার ভয় নেই। শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে করোনার ভয়। আমাদের অনার্স-মাস্টার্সের পরীক্ষা চলমান। মেসে-বাসাবাড়িতে গাদাগাদি হয়ে অবস্থান করে পরীক্ষায় অংশ নিতে হচ্ছে’।

তারা আরও জানান, অনেকেই টিউশনি হারিয়ে উচ্চ মূল্যে মেস-বাসাবাড়িতে থাকছেন। যেটা দরিদ্র শিক্ষার্থীদের জন্য কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রশাসনকে পরিষ্কার করে বলে দিতে চাই, অবিলম্বে হল খুলে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখুন। তা নাহলে লাগাতার কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো’।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা আরোও বলেন, ‘উপাচার্য স্যার কোনো সিদ্ধান্ত না দেওয়া পর্যন্ত আমরা এখানে অবস্থান করব’।

পরে সেখানে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেনসহ প্রক্টরিয়াল বডির অন্যান্য সদস্যরা। এসময় তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তোমাদের দাবির সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত। কিন্তু সরকারি নির্দেশনা ছাড়া আমরা কিভাবে হল খোলার সিদ্ধান্ত নেই?’

এসময় তিনি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে একটি প্রতিনিধি দলকে উপাচার্যের সঙ্গে আলোচনা করার আহ্বান জানান। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত প্রতিনিধি দল উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালামের সঙ্গে আলোচনায় বসেছেন।

error: Content is protected !!