রানা কাদির, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত দুদিনে এ জেলায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.এ.এস.এম.ফাতেহ্ আকরাম জানান, গত মঙ্গল ও বুধবার পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গায় করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ৭জনের মৃত্যু হয়েছে। এর হলেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার ঝিনাইদহ বাসষ্ট্যান্ডপাড়ার খলিল রহমানের স্ত্রী জাহানারা বেগম (৬০), জেলার জীবননগর উপজেলার কালা গ্রামের মাঝেরপাড়ার মরহুম ফকির চাঁদ বিশ্বাসের ছেলে আবুল কাশেম বিশ্বাস (৭০) ও একই উপজেলার বেনীপুর গ্রামের ফকরুদ্দীন বিশ্বাসের মেয়ে ফরিদা খাতুন (৪০), বাঁকা গ্রামের হাউস আলীর ছেলে আব্দুস সোবহান (৬০)। দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের লোকনাথপুর গ্রামের পশ্চিমপাড়ার মরহুম সিরাজুল ইসলামের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৬৫) ও একই গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে রুহুল আমীন (৭৯) এবং একই উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের মদন মিয়ার স্ত্রী তাসলিমা বেগম (৫৫)।

চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল ও ডিজিজ কন্ট্রোল অফিসার ডা.আওলিয়ার রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে ৪১টি নমুনা পরীক্ষায় ৪১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ১৯ জন, আলমডাঙ্গা উপজেলার ৭ জন, দামুড়হুদা উপজেলার ১ এবং জীবননগর উপজেলার ১৪ জন। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১০০ শতাংশ। যা এ যাবৎ কালের নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় সর্বোচ্চ শনাক্তের হার। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ২ হাজার ৮৩৭ জন, সুস্থ্য হয়েছে ২ হাজার ৪৯ জন, বর্তমানে আক্রান্ত ৬৯৭ জন। এর মধ্যে হোম আয়সোলেশনে আছে ৬৩৩ জন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে ৬১ জন ও রেফার করা হয়েছে ৩জন। এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছে ৯১ জন।

error: Content is protected !!