রানা কাদির, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার মোমিনুর রেল গেটে পাখি ভ্যান থেকে ঝাঁপ দিয়ে মিরাজুল নামে (৩০)এক মানসিক রোগী আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বিকাল ৫টায় টুয়াডাঙ্গার মোমিনপুর রেলগেটে। রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা কপোকাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনের পিচনের দিকে ২টা বোগীর আগে ট্রেনের নীচে সে ঝাঁপ দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তার মাথা ধর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়। নিহত মিরাজুল চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সরিষাডাঙ্গা গ্রামের তোতার ছেলে। প্রত্যক্ষ দর্শী গেটম্যান খাইরুল জানায়,মিরাজুল তার বাবা ও স্ত্রীর সাথে কবিরাজ বাড়ী থেকে পাখী ভ্যানে করে বাড়ীর দিকে যাচ্ছিল। প্রতিমধ্যে নীলমনিগঞ্জ বাজারে এসে দেখে গেট লাগানো। এ সময় ট্রেনের শব্দ পেয়ে সে পাখী ভ্যান থেকে লাফ দিয়ে ট্রেনের নীচে মাথা দিয়ে আত্ম হত্যা করে । ট্রেন মোমিনপুর স্টেশনে পৌছানোর কয়েক সেকেন্ড আগেই এ ঘটনা ঘটে

চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে ফাঁড়ী পুলিশের উপ-পরিদর্শক নরেশ চন্দ্র দাস জানান,শুক্রবার বিকাল ৫টায় ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে সে আত্মহত্যা করেছে। তার বাবা ও স্ত্রী সঙ্গে থাকা অবস্থায় রেলওয়ের কোন কর্মকর্তা পৌছানোর আগেই তার লাশ নিয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে আমি সেখানে পৌছায়। তাদের আবেদনের পরিপেক্ষিত লাশটি তাদের পরিবারের কাছে রাখা হয়। তিনি জানান,যেহেতু তার বাবা মার সামনে ঘটনাটি ঘটেছে তাই তাদের পরিবরের পক্ষ থেকে অভিযোগ নেই।

error: Content is protected !!