মেহেরপুর প্রতিনিধি : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা নির্বাচন অফিসে জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্টকার্ড) সংগ্রহ করতে এসেছিলেন বয়োবৃদ্ধ মুনছুর আলী। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর নির্বাচন অফিসার তাকে জানান তিনি মৃত। এ কথা শুনে নির্বাক এই বৃদ্ধ।

গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়নের রাজাপুর কোদাইলকাটি গ্রামের বাসিন্দা বৃদ্ধ মুনছুর আলী জানান, বয়স্ক ভাতার টাকা উঠানোর জন্য বিকাশে অ্যাকাউন্ট খোলা লাগবে। তাই গতকাল রোববার তিনি স্মার্টকার্ড তুলতে গিয়েছিলেন। কিন্তু জাতীয় পরিচয়পত্রে তাকে মৃত দেখানোয় অ্যাকাউন্ট খুলতে পারছেন না।

তিনি বলেন, বিষয়টি তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রশাসন ও ইউপি চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি। এ ভুল সংশোধনের জন্য আবেদন করতে বলেছেন তারা।

সোমবার (১৫ মার্চ) মটমুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল আহম্মেদ জানান, জাতীয় পরিচয়পত্রে তথ্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে যারা নিয়োজিত ছিলেন তারা ব্যক্তি পরিচয় না জেনে নিজের মনগড়া তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি করেছেন। এমন অনেক ভুল করে জীবিত ব্যক্তিকে মৃত বলে তথ্য সরবরাহ করেছেন। আবেদ আলী নামের এক স্কুলশিক্ষকের ক্ষেত্রেও এমন জটিলতা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুল আজিজ জানান, তিনি গাংনীতে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে এমন বেশ কয়েকটি জটিলতা দেখেছেন। এ ক্ষেত্রে আবেদন করা হলে সমস্যার সমাধান করা হবে।

error: Content is protected !!