ইউসুফ সুমন : স্থায়ী বন্দর এলাকার মোংলা নদীর মামার জেটি থেকে বিদেশী মদসহ একটি জালীবোর্ট জব্দ করেছে কোস্ট গার্ড। আজ শুক্রবার দুপুরের দিকে গোপন সংবাদ পেয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালায় কোস্ট গার্ড। এসময় তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে পাচারকারীরা পালিয়ে গেলও জালীবোর্টে থাকা বিতেশী মদ উদ্ধার করে। তবে এ জালীবোর্ট মালিক বেল্লাল ওরফে খোমিনী বেল্লালসহ তার সহযোগীরা পালিয়ে যায় বলে জানায় স্থানীযরা। বেল্লাল পৌর শহরের মাদ্রাসা রোড এলাকায় বসবাস করেন।
কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন (মোংলা) গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেঃ এম মাজহারুল হক জানান, মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজ থেকে বিদেশী মদ (হুইচস্কী) জালিবোটে বহন করে পাচারের উদ্দোশ্যে মোংলা নদীর মামার ঘাট এলাকায় রাখা হয়েছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে ওই এলাকায় অভিযান চালায় কোস্ট গার্ড সদস্যরা। কোস্ট গার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে মামার জেটিতে থাকা পাচারকারীরা বোটে পাচার করে আনা ৪ কার্টুন মদ তড়িঘড়ি করে নামিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে অভিযানকারীরা পাচারকারীদের বোটে তল্লাশী চালিয়ে আরে ১৫ বোতল বিদেশী মদ উদ্ধার করে এবং বোটটি জব্দ করে।

উদ্ধারকৃত মদ ও বোট মোংলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তরের করা হবে বলে জানিয়েছে কোস্ট গার্ড। এ ঘটনায় বিদেশী মদ বহনকারী জালিবোট ও জালিবোট মালিক এবং পাচারকারী বেল্লাল ওরফে খোমিনি বেল্লালসহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে কোস্ট গার্ড। এদিকে বেল্লালসহ তার সহযোগী পাচারকারী একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে মোংলা বন্দরে আগত বিদেশী জাহাজ থেকে মাদক, জ্বালানী তেল ও অন্যান্য মালামালের কালোবাজারী ব্যবসা করে আসছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এর আগে বিভিন্ন সময়ে বেল্লাল চক্রের পাচারকৃত মালামাল আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর হাতে আটকও হয়েছে। তারপরও বেল্লাল চক্র মোংলা বন্দরে চোরাচালান কার্যক্রমে সক্রিয় রয়েছেন বলেও বহু অভিযোগ রয়েছে।

error: Content is protected !!