মোংলা প্রতিনিধি
সুন্দরবনের আত্মসমর্পনকারী জলদস্যুদের অর্থ সহায়তা দিয়েছে র‌্যাব-৮। সোমবার দুপুর ৩টায় মোংলা বন্দরের পিকনিক কর্নার ঘাটে বনের ২৭ টি বাহিনীর ২৮৪ জন সদস্যদের মাঝে নগদ এ অর্থ তুলে দেন র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা।

র‌্যাব-৮ এর কর্মকর্তা নিয়ামুল ইসলাম জানান, করোনাকালীন সময় সুন্দরবনের আত্মসমর্পনকারী জলদস্যুরা তাদের জীবিকা নির্বাহ করতে অনেক কষ্ট হচ্ছে। তাই জলদস্যুদের সরকারের পক্ষ থেকে সহায়তার জন্য নগদ ৬ হাজার ৫০০ টাকা করে ২৭টি বাহিনীর ২৮৪ জন সদস্যকে এ অর্থ সহায়তা দেয়া হবে। প্রথম পর্যায় মোংলা, বাগেহাট ও খুলনাতে ৫৪ জন এবং আজ দ্বিতীয় পর্যায় ১০৪ জনকে এ অর্থ প্রদান করা হলো। এছাড়া বাকি ১২৮ জনকে সরকারের পক্ষ থেকে নগত এ অর্থ প্রদান করা হবে।

এছাড়াও বছরের ইদের সময় দস্যুরা পরিবার পরিজন নিয়ে যাতে ভাল ভাবে ঈদ উদযাপন করতে পারে সেজন্য র‌্যাবের মহাপরিচালকের পক্ষ থেকে লুঙ্গি, শাড়ি এবং সেমাই ও চিনি তুলে দিয়েছেন।

সুন্দরবন থেকে দস্যু জীবন ছেড়ে যারা ভালো পথে ফিড়ে আসছে, এ সকল জলদস্যুদের সাভলম্ভী করার জন্য বিভিন্ন সময় সহায়তা করে আসছে সরকার। আর সরকারের তহবিল থেকে জলদস্যুদের সহায়তার কার্যক্রম র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ান র‌্যাব-৮ এটি সঠিক ভাবে বাস্তবায়ন করে আসছে।

পর্যাক্রমে সুন্দরবনের আতœসমর্পনকারী জলদস্যু জাহাঙ্গীর, শান্ত, মাষ্টার, সাগর, কবিরাজ, খোকা বাবু এবং নোয়া বহিনীসহ ২৭টি বাহিনীর ২৮৪ জন সদস্যদের মাঝে এ নগদ অর্থ হস্তান্তর করা হবে।

২০১৮ সালের ২৯ জুন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ইঞ্জিনিয়ারিং ঘাটে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের হাতে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও গোলাবারুদ জমা দিয়ে প্রথম আতœসর্ম্পন করে দস্যু মাষ্টার বাহিনী সদস্যরা।

error: Content is protected !!