কামরুল হাসান জুয়েল, ফরিদপুর থেকে: ফরিদপুরে বিষ মেশানের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিন পরিবারের ৮ জন নারী ও পুরুষ। পরে বেড়া কেটে ঢুকে লুটপাট করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটেছে সদর উপজেলার ঈশানগোপালপুর ইউনিয়নের পিঠাকুমড়া বাজারের পাশের তিন বাড়িতে। নেশার টাকা জোগাড় করতে সংঘবদ্ধ মাদকাসক্তরা এ অপকর্ম করেছে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা। ফরিদপুর কোতয়ালী থানার এসআই মো. সেলিম জানান, ওই এলাকার প্রবীণ শিক্ষক শৈলেন দাস (৭০), মুদি ব্যবসায়ী অজিত সরকার (৫৫) ও দিনমজুর নব শেখের (৬০) এর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে বাড়ির রান্না করা খাবার খেয়ে তাদের তিনটি পরিবারের ৮জন নারী ও পুরুষ সংজ্ঞাহীন হয়ে যান। প্রতিবেশীদের নিকট হতে খবর পেয়ে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ঈশান গোপালপুর ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য রিংকু দত্ত জানান, গভীর রাতে শৈলেন দাসের বাড়িতে দুর্বৃত্তরা হানা দেয়। তারা শৈলেন দাসের সেমিপাকা ঘরের টিনের বেড়া কেটে ঘরে রাখা মালপত্র, সোনা গহনা, জামা কাপড় সব নিয়ে যায়। তিনি জানান, বুধবার দুপুর পর্যন্ত অসুস্থদের পুরোপুরি সংজ্ঞা ফেরেনি। পুলিশ এসে ঘটনা পরিদর্শন করে অসুস্থদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করেন। জানা গেছে, শৈলেন দাস মূলত টিউশনি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। তার ছেলেমেয়েরা কর্মস্থল ও সংসারের কারণে বাড়ির বাইরে অন্য জেলায় থাকেন। স্ত্রীকে নিয়ে তিনি এখানে বসবাস করছেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, সম্প্রতি ওই গ্রামে একটি শক্তিশালী মাদকের আখড়া তৈরি হয়েছে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় সেখানে রমরমা আসর বসে। নেশার টাকা জোগাড় করতে এই অপকর্ম ঘটিয়েছে। এব্যাপারে তারা পুলিশের জোরদার ভূমিকা কামনা করেছেন।

error: Content is protected !!