আবুল হোসেন, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ৫নং ফেরি ঘাটের এ্যাপ্রোচ সড়ক ভেঙ্গে এবং অতিরিক্ত উচু ও খানাখন্দের কারনে ফেরি ঘাটটি মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। ২ নভেম্বর বুধবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় ওই ঘাট দিয়ে ফেরি থেকে নেমে একটি মালবাহী ট্রাক ( যশোর ট ১১-৩৮৩৯) উপরে উঠতে গিয়ে উল্টে যায়। এতে বড় ধরনের হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও চাপায় পড়ে ট্রাক চালকের ডান হাত ভেঙে আহত হয়েছে।

আহত ট্রাক চালকের নাম মোঃ টিটু সেক (৩০)। তিনি বলেন, ঢাকা থেকে গার্মেন্টসের ঝুঁট বোঝাই করে আমি বেনাপোলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলাম। দৌলতদিয়ার ৫ নং ঘাট দিয়ে ফেরি হতে নেমে এ্যাপ্রোচ সড়ক দিয়ে মূল সড়কে উঠার চেষ্টা করছি। কিন্তু এ্যাপ্রোচ সড়কটি অত্যাধিক উচু ও ভাঙ্গা-চুরা হওয়ায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে আমার ট্রাকটি পাশের রোজিনা পরিবহনের একটি বাসের উপর গিয়ে হেলে পড়ে। পরে মালামাল আনলোড করে দীর্ঘ চেষ্টার পর বেলা আড়াইটার দিকে চেইন কপ্পা দিয়ে ট্রাকটি তোলা হয়।

দৌলতদিয়া ঘাট গ্রীন লাইন পরিবহনের সুপারভাইজার মো. আজাদ বেপারী বলেন, ৫ নং ঘাটটি এখন মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। প্রায় প্রতিদিনই এই ঘাটের এ্যাপ্রোচ সড়কে ছোট বড় দূর্ঘটনা ঘটছে।কিন্তু বিআইডব্লিউটিএ কতৃপক্ষ ঘাটটি মেরামতে গাফিলতি করছে। ঘাটের পাশে থাকা অবৈধ দোকানপাট সরিয়ে এ্যাপ্রোচ সড়কটি সোজা করে দ্রুত সংস্কার করার দাবি জানান।

৫ নং ঘাট এলাকায় কর্মরত ট্রাফিক পুলিশের টিএসআই বিনয় কুমার চক্রবর্তী বলেন, এই ঘাটের এ্যাপ্রোচ সড়কটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এখান দিয়ে উঠা নামা নিয়ন্ত্রন করতে তাদের প্রচন্ড বেগ পেতে হচ্ছে। মাঝে মধ্যেই বাস,ট্রাক উঠানামা করার সময় দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে বিআইডব্লিউটিএ’র আরিচা অঞ্চলের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শাহ আলম বলেন, দ্রুতই ঘাটটি সংস্কার করা হবে। নদী ভাঙনে দৌলতদিয়ার ঘাটগুলো ভেঙ্গে কাছাকাছি চলে আসায় যথাযথ টার্নিং সহ এ্যাপ্রোচ সড়ক তৈরীতে তাদের সমস্যা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

error: Content is protected !!