পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কসবামাজাইল ইউপির কুঠি মালিয়াট মাঠে এক কৃষকের ৯কেজি দানার পেঁয়াজের বীজতলায় তরল জাতীয় বিষাক্ত পদার্থ ছিটিয়ে নাশকতার অভিযোগ উঠেছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কসবামাজাইল ইউপির ডেমনামারা গ্রামের ছাকেন আলী। তিনি সেনা বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত হাবিলদার। গত বৃহস্পতিবার ১০ ডিসেম্বর দিবাগত রাতের যে কোনো সময় নাশকতার ঘটনাটি ঘটতে পারে বলে জানান ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক সেকেন আলীর জ্যেষ্ঠ পুত্র সুলতান উদ্দিন।

তিনি বলেন, শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বাড়ী থেকে আধা কিলোমিটার দূরে কুঠি মালিয়াট বিশাল মাঠে তাদের পেঁয়াজের বীজতলায় গিয়ে নাশকতার বিষয়টি দেখতে পান। ৯ কেজি পেঁয়াজের দানা ক্রয় করে ৪০ শতাংশ জমিতে বীজতলা তৈরী করা হয়। প্রায় ১৫ পাখি জমিতে পেঁয়াজ লাগানোর চারা উপযুক্ত হয়। পেঁয়াজ লাগানোর জমি তৈরী করা হচ্ছিল। আগামী সপ্তাহে পেঁয়াজ লাগানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন ছিল। বীজতলায় দুর্বৃত্তদের নাশকতার কারণে প্রায় তিনলাখ টাকার ক্ষতির কথা উল্লেখ করে সুলতান উদ্দিন আরো বলেন, পেঁয়াজের বীজতলায় নাশকতার ঘটনা জানাজানির পর থেকে আমরা পারিবারিক ভাবে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রয়েছি। দুপুর সোয়া দুইটার দিকে পেঁয়াজদানার বীজতলায় নাশকতার বিষয়টি কসবামাজাইল ইউপির চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান খানকে মোবাইল ফোনে অবহিত করার পর আইনী প্রক্রিয়ার জন্য বিকেলে পাংশা মডেল থানায় লিখিতভাবে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে, সপ্তাহখানেক আগে একই মাঠে কৃষক সফিকুল ইসলামের ৬ কেজি দানার পেঁয়াজের বীজতলায় দুর্বৃত্তরা নাশকতা করে বলে জানা গেছে। নাশকতার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ছাকেন আলী।

error: Content is protected !!