মোক্তার হোসেন, পাংশা র্(জবাড়ী) প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা পৌরশহরের মাগুড়াডাঙ্গী গ্রামে মঙ্গলবার ১৬ মার্চ দুপুরে বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ সরদার আব্দুস সোবহান মাস্টারের কুলখানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাজী আব্দুল মাজেদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ সরদার আব্দুস সোবহান (৮৬) গত ১৩ মার্চ ভোর ৫টার সময় বার্ধক্যজনিত কারণে মাগুড়াডাঙ্গী নিজ গ্রামের বাড়ীতে ইন্তেকাল করেন।

কুলখানী অনুষ্ঠানে মরহুম সরদার আব্দুস সোবহানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন পাংশা শাহজুঁই কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মুহাঃ আবু মুসা আশয়ারী।

অনুষ্ঠানে ধর্মীয় আলোচনা করেন হোগলাডাঙ্গী মোহাম্মাদিয়া ইসলামিয়া কামিল মডেল মাদরাসার অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মীর মোঃ আব্দুল বাতেন, পাংশা সিদ্দিকীয়া ফাযিল মাদরাসার অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মোঃ নুরুল ইসলাম, পাংশা সরকারী কলেজের ইসলামী শিক্ষা বিভাগের প্রভাষক মোঃ আব্দুল কুদ্দুস মোল্লা, মাওলানা মোঃ আব্দুল কুদ্দুস, মাওলানা মোঃ আব্দুল কাদের ও মোঃ ইউনুস হুসাইন।

রাজবাড়ী-২ আসনের সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা নাসিরুল হক সাবু, পাংশা মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ এ.বি.এম ওয়াহিদুজ্জামান (ডাবলু), পাংশা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর খোন্দকার মাহবুব হোসেন রিপন, মৃগী শহীদ দিয়ানত ডিগ্রি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও মাজবাড়ী জাহানারা বেগম কলেজের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপক নজরুল ইসলাম খান, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক মোঃ ফরিদুজ্জামান ফরিদ, বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান রাজা, পাংশা শিল্প ও বণিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী আসকার দানিয়েল সিপার, পাংশা সাহিত্য উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি মোহাম্মাদ ফিরোজ হায়দার, হারুন অর রশীদ, মরহুমের আত্মীয়-স্বজন, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত ঃ সরদার আব্দুস সোবহান ১৯৯২ সালে কাজী আব্দুল মাজেদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে অবসরগ্রহণ করেন। বেশ কিছুদিন যাবত তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে অসুস্থ ছিলেন। শিক্ষকতা ও সুস্থকালীন সময়ে তিনি বিভিন্ন মসজিদে পবিত্র কোরআনের উপর তাফসীর পেশ করতেন। তিনি সাহিত্যচর্চা করতেন। কোরআনের দর্পন নামে তার একটি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়। এয়াকুব আলী চৌধুরীর জীবনীসহ তার একাধিক গ্রন্থ অপ্রকাশিত রয়েছে। সরদার আব্দুস সোবহান মাস্টার একজন গুণী মানুষ ছিলেন। তিনি প্রবীণ ভাষা সৈনিক অধ্যাপক আব্দুল গফুরের ভগ্নিপতি।

error: Content is protected !!