মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি : মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান বৃহস্পতিবার ৪মার্চ পাংশায় ব্যস্তদিন অতিবাহিত করেছেন। বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়, পাংশা সিদ্দিকীয়া ফাযিল মাদরাসায় শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময়, পাংশার এসিল্যান্ড অফিস, পাংশা মডেল থানা ও পাংশা হাসপাতাল পরিদর্শন, পাংশা পৌরসভায় মতবিনিময় ও পাংশা ডাকবাংলোয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময়ের মধ্যদিয়ে তার ব্যস্ত সময় পার হয়। পাংশায় বিভিন্ন কর্মসূচিতে যোগদানের সময় শ্রদ্ধা ও ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন তিনি।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার সময় পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান, পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, পাংশা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার খোন্দকার সফিকুল ইসলাম, পাংশা উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার শ্যামল কুমার বিশ্বাস ও সাংবাদিক মো. মোক্তার হোসেন প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান বলেন, জনগণের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা আছে। নিয়মিত অফিস করা, ই-নথির ব্যবহার ও জনসাধারণের সেবা নিশ্চিতকরণে দায়িত্বশীল হতে হবে। সাধারণ মানুষ যেন হয়রানীর শিকার না হয় সে বিষয়টি লক্ষ্য রাখতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সময় ভালোভাবে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উপজেলার সকল দপ্তরের ওয়েব পোর্টাল নিয়মিত আপডেট করার গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস ও রোকেয়া বেগম, মাছপাড়া ইউপির চেয়ারম্যান ও পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খোন্দকার সাইফুল ইসলাম (বুড়ো), সরিষা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও সরিষা বঙ্গবন্ধু কলেজের উপাধ্যক্ষ মোঃ আব্দুস সোবাহান, শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জাহাঙ্গীরসহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান উপস্থিত সবার সাথে শুভেচ্ছা ও কুশলাদি বিনিময় করেন।

প্রসঙ্গতঃ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান ১৮/০৭/২০১২ থেকে ১৯/০৭/২০১৬ পর্যন্ত ৪বছর পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হিসেবে দক্ষতা ও সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

এরপর পর্যায়ক্রমে পাংশা সিদ্দিকীয়া ফাযিল মাদরাসা, পাংশা উপজেলা ভূমি অফিস, পাংশা মডেল থানা, পাংশা পৌরসভা ও পাংশা হাসপাতাল পরিদর্শন করেন তিনি।

error: Content is protected !!