রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের পদ্মার মোড় একালাকায় একটি চলন্ত যাত্রীবাহি বাসে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত দলের ৭ সদস্যকে আটক করেছে ফরিদপুর র‌্যাব-৮ সদস্যরা।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ৩টার দিকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় র‌্যাব-৮।

আটকৃতরা হলো, মানিকগঞ্জের ঘিউর উপজেলার কাউটিয়া এলাকার মৃ্ত মুন্নাফের ছেলে মো. আব্দুল জলিল (৪০), জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মো. আহম্মদ আলীর ছেলে মো. লিটন (২০), হরিরামপুরের কুকুরহাটি এলাকার শেখ গফুরের ছেলে মো. শেখ জুয়েল (২০), গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলার কেশরগাড়ি এলাকার মো. আতিয়ার রহমানের ছেলে মো. মিলন মিয়া (২০), একই এলাকার মৃত মুকুল রহমানের ছেলে মো. পাপুল ইসলাম (২০), রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার অনন্তপুর এলাকার মো. আমিনুল ইসলামের ছেলে মো. শহিদুল ইসলাম (২০), একই এলাকার বিপনী চন্দ্র মহন্তের ছেলে শ্রী উজ্জ্বল চন্দ্র মহন্ত (২৪)।

বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, দীর্ঘদিন ধরে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কে বিভিন্ন সময়ে যাত্রীবাহি বাসে ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। শুক্রবার গভীর রাতে মহাসড়কে একে ট্রাভেলসে ডাকাতির প্রস্তুতের সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি স্কুল ব্যাগ, দুটি চাপাতি, চারটি চাকু, ছয়টি মোবাইল ও ১২টি সীমকার্ড জব্দ করা হয়।

আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা পেশাদার ডাকাত এবং ইতিপূর্বে দেশের বিভিন্ন এলাকায় একাধিকবার ডাকাতি করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ডাকাতির সময় ৭-৮ জন থাকে এবং এদের মধ্যে থাকে একজন প্রশিক্ষিত গাড়ি চালক। ডাকাতির সময় পরিবহনের ড্রাইভারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গাড়ি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয় । তারপর অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের ভয়ভিতি দেখিয়ে মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়।

উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দঘাট থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে। চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

error: Content is protected !!