মেহেরপুর প্রতিনিধি: আগে চাকুরি নিতে হলে স্থানীয় চেয়ারম্যানের কাছ থেকে একটি সার্টিফিকেট নিতে হতো আর এখন এই আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে চাকুরী নিতে হলে প্রার্থীর বাপ দাদা কোন দল করতো সে আওয়মাী লীগ করতো নাকি বিএনপি করতো এ ধরনের খোঁজ খবর নেওয়া হয়ে থাকে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা যুবদলের আয়োজনে ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান জুলফিকার আলি ভুট্টো।

উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মোঃ মালেক হোসেন চপল বিশ্বাস এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপজেলার ষোলটাকা ও রাইপুর ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষনা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ৯ নম্বর রাইপুর ইউনিয়নে হেমায়েতপুর গ্রামের আরেফিন হোসেনকে আহবায়ক করে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি এবং ৬ নম্বর ষোলটাকা ইউনিয়নে আমতৈল গ্রামের শামীম আহম্মেদকে আহবায়ক করে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক গঠন করা হয়। সভায় এ কমিটিকে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোঃ রেজাউল হক, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আওয়াল হোসেন, মনিরুজ্জামান গাড্ডু উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাহারবাটি ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবলু, সহ-সভাপতি আঃ হামিদ, সহ-সভাপতি ও ধানখোলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আখেরুজ্জামান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ইনসারুল হক ইন্সু, বিএনপি নেতা ষোলটাকা ইউনিয়ন সাবেক চেয়ারম্যান আলফাজউদ্দিন কালু, , বিএনপি নেতা ও ষোলটাকা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি, জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দাল হক, পৌর যুবদলের আহবায়ক সাইদুল ইসলাম, সদস্য সচিব এনামুল হকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা আরও বলেন এই আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত করে জনগনের ভোট ও ভাতের অধিকার ফিরিয়ে এনে দিতে সারাদেশে নতুন করে কমিটি গঠনের প্রস্তুতি চলছে। যাতে আগামীতে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় দিয়ে আবার আমাদের নেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সফল হই।

পরে উপজেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল হক আহবায়ক কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষনা করেন।

error: Content is protected !!