রবিবার্তা ডেস্ক
করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ২৪ ও নারী ৮ জন। মৃত ৩২ জনের মধ্যে হাসপাতালে ৩১ এবং একজন বাসায় মৃত্যুবরণ করেন। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭ হাজার ৫২ জনে।

রোববার (১৩ ডিসেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪০টি ল্যাবরেটরিতে ১২ হাজার ৮০২টি নমুনা সংগ্রহ ও ১২ হাজার ৭৪৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ২৯ লাখ ৬৯ হাজার ৬৩০টি। এ সময়ে আক্রান্ত হিসেবে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ৩৫৫ জন। দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৪ লাখ ৯০ হাজার ৫৩৩ জনে।

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৯৩ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ২০ হাজার ৮৯৬ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১০ দশমিক শূন্য ৬৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৫২ শতাংশ, শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৮০ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৪ শতাংশ।

গত ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম শনাক্তের খবর জানানো হয়। এর ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ করোনায় দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে সরকার। এ পর্যন্ত মোট মৃত ৭ হাজার ৫২ জনের মধ্যে পুরুষ ৫ হাজার ৩৮৬ (৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ) ও নারী এক হাজার ৬৬৬ জন (২৩ দশমিক শূন্য ৬২ শতাংশ)।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩২ জনের মধ্যে ‌বি‌শোর্ধ্ব একজন, ত্রি‌শোর্ধ্ব তিনজন, চ‌ল্লিশোর্ধ্ব একজন, পঞ্চা‌শোর্ধ্ব সাতজন এবং ষা‌টোর্ধ্ব ২০ জন।

বিভাগ অনুযায়ী, ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রামে ৩ জন, রাজশাহীতে একজন, খুলনায় তিনজন, সি‌লেটে তিনজন এবং রংপুরে তিনজন রয়েছেন।

error: Content is protected !!