নিজস্ব প্রতিনিধি : রাজধানীসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও দুইজন নারী।

সাতজনের সকলেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে দেশে মহামারিতে মৃত্যু বেড়ে দাঁড়াল ৮ হাজার ৪৩৫ জন।

বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ ) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২১৯টি ল্যাবরেটরিতে ১৬ হাজার ১৪৪টি নমুনা সংগ্রহ ও ১৫ হাজার ৯৮৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৪১ লাখ ৫ হাজার ৩২১টি।

একই সময়ে করোনাভাইরাস শনাক্তের নমুনা পরীক্ষা করে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ৬১৯ জন। দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ ৪৮ হাজার ৫৪৯ জন।

এদিকে, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৮৪১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৪৬৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার হার তিন দশমিক ৮৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩দশমিক ৩৬শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১দশমিক শূন্য ২৩শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৪শতাংশ।

চলতি বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত ও ১৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যু হয়। ১মার্চ পর্যন্ত মোট মৃত্যু ৮ হাজার ৪৩৫জন। এদের মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৩৭৭জন (৭৫ দশমিক ৬০ শতাংশ) ও নারী দুই হাজার ৫৮ জন (২৪ শূন্য ৪০ শতাংশ)।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু সাতজনের সকলেই ষাটোর্ধ্ব প্রবীণ।
বিভাগওয়ারী হিসেবে মৃত সাতজনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে চারজন, চট্টগ্রাম, রাজশাহী এবং সিলেট বিভাগে একজন করে মারা যান।

error: Content is protected !!