দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দীর্ঘদিন পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলায় অনন্দঘন পরিবেশে স্কুল ক্যাম্পস মুখরিত হয়ে উঠে। গতকাল রবিবার উপজেলার বিভিন্ন স্কুলে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে স্কুল উৎসব পালিত হয়। সকাল ৯টায় বিভিন্ন স্কুলে শিক্ষার্থীরা প্রবেশকালে তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। পাশাপাশি তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রক যন্ত্র দিয়ে শিক্ষার্থীদের তাপ মেপে স্কুলে বা শ্রেণীকক্ষে প্রবেশ করানো হয়। এছাড়াও শতভাগ মাস্ক পরিধান, করোনা স্বাস্থ্যবিধি মানা ও দূরত্ব বজায় রেখে শিক্ষার্থীদের শ্রেণীকক্ষে বসার ব্যবস্থা করা হয়। দেড় বছর পর স্কুলে শিক্ষার্থীদের আগমনে স্কুল ও কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের সোহার্দপূর্ণ পরিবেশে মিলন মেলায় পণিত হয়। আবার অনেকে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন।

এদিকে সরকারী নির্দেশনা মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালিত ও পাঠদান হচ্ছে কিনা তা তদারকি করেন দৌলতপুর মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সরদার মো. আবু সালেক। সকাল ১০টায় দৌলতপুর সরকার পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শনকালে তিনি বিদ্যালয়ের পরিবেশ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

অপরদিকে দীর্ঘদিন পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলায় দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান সুমনের সভাপতিত্বে দৌলতপুর কলেজ শিক্ষক মিলনয়তনে শিক্ষকদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস নেওয়ার বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করে উপস্থিত শিক্ষকদের উদ্দেশ্য নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন সভার পতি ও অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খান সুমন।

উল্লেখ্য গতকাল থেকে দৌলতপুরে ২১৭টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৮৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১৫টি মাদ্রাসা ও ১৮টি কলেজ এবং প্রায় ২০০টি কিন্ডার গার্টেন স্কুলে শিক্ষাকার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.