নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিবন্ধী মানুষের প্রত্যয় এই স্লোগান নিয়ে সামনে নিয়ে এগিয়ে চলা দেশের অন্যতম আলোচিত স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন অন এন্ড লিভ।
সংগঠনটি প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান লন্ডন প্রবাসী ফরিদা ইয়াসমিন জেসির পরিচালনায় দেশের আনাচে-কানাচে হাজার হাজার প্রতিবন্ধী অসহায় বৃদ্ধ ও সর্বহারা মানুষের আশ্রয় স্থলে রূপ নিয়েছে।

শুধু এখানেই শেষ নয় সংগঠনটি ইসলামী কার্যক্রম পরিচালনা ও ইসলামী সংস্কৃতি চর্চা এবং ইসলাম ধর্ম প্রচারের কাজ করে যাচ্ছে।
সাম্প্রতিক কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় চলতি বছরের প্রতিষ্ঠিত হয়েছে খরেরচড়া আল-হেরা আবাসিক হাফিজিয়া মাদ্রাসা।
প্রতিষ্ঠানটিতে অসহায় দুস্থ ও মধ্যবিত্ত পরিবারের প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী পবিত্র আল-কোরআনের হাফেজিয়াতে অধ্যায়নরত রয়েছে।
প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে প্রতিষ্ঠানটি তেমন জাকজমক পূর্ণ না হলেও বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে মাত্র এক বছরেই।
সাম্প্রতিক জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটিতে প্রতি মাসে পবিত্র কোরআনের ও ইসলামী সংগীতে প্রতিযোগিতা হয়ে থাকে ‌।
অর্থ সংকটের কারণে ওই প্রতিষ্ঠানটিকে সাউন্ড সিস্টেম না থাকায় বেশ বিপাকে পড়তে হচ্ছে তাদের।
এমন ঘটনা শুনে অন এন্ড লিভ কুষ্টিয়া জেলা শাখার প্রতিনিধি সোহাগ মাহমুদ খানের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠানটিতে পর্যবেক্ষণে যায় কুষ্টিয়া জেলা টিম।
এরপর বিষয়টির বিস্তারিত সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ফরিদা ইয়াসমিন জেসির কাছে তুলে ধরা হলে সেটা পূরন করার আস্বস্থ্য করেন। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সাথে আলোচনা শেষে গতকাল সন্ধায় সাম্প্রতিক কেরাত ও ইসলামী সংগীতের প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
মাদ্রাসার সকল শিক্ষক ও পরিচালনা পরিষদের সদস্য এবং অন এন্ড লিভের কুষ্টিয়া জেলার টিমের উপস্থিতিতে আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে।
সেসময় কেরাত ইসলামী সংগীত দুইটি ক্যাটাগরিতে 20 জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। সংগঠনের কুষ্টিয়া জেলা শাখার সদস্য মাসুদ রানার সঞ্চালনায় এদের মধ্যে বিজয়ী ৬ জনের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।
সেসময় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের হাতে একটি উন্নত মানের সাউন্ড সিস্টেম অর্ন এন্ড লিভ এর পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে তুলে দেওয়া। যেনো প্রতিমাসে তারা সুন্দর ভাবে কেরাতের প্রোগাম ও ইসলামী সংগীত পরিচালোনা করতে পারে। সেসময় দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা শেষে মাদ্রাসার সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।
এমন কর্মকাণ্ডে আবেগ আপ্লুত হয়ে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ অন এন্ড লিভের জন্য প্রাণ খুলে দোয়া করেন।
সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জানান, মূলত আমরা প্রতিবন্ধী অসহায় ও অসচ্ছল ব্যক্তিদের নিয়ে কাজ করে আসছি।
এর পাশাপাশি ইসলাম ধর্ম প্রচার ইসলামী সংস্কৃতি ও ইসলামী সাংস্কৃতিক চর্চা সহ ধর্মীয় কর্মকান্ড অব্যাহত থাকবে।
এসময় ফ্রেন্ডস অফ অর্ন এন্ড লিভ’র কুষ্টিয়া জেলা শাখার সদস্য, কেকে বিপ্লব, মাসুম পারভেজ, মুস্তাফিজুর রহমান রিগান, মমিন হসেন ডালিম, আজাদ হোসেন সহ মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ও সংগঠনটি কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.