মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউপির কলিমহর গ্রামে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে গোলযোগের ঘটনায় উভয় পক্ষে কমবেশি ৬জন আহত হয়েছেন। গত ২৩ শে সেপ্টেম্বর সকালে এ গোলযোগের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- আতিয়ার রহমান (৪০), আতাউর রহমান (৩৭), ববিতা (৩২), সাজিদা (৪৪), নাসিমা (৩৫) ও জাহিদুল ইসলাম বাবু (৪৫)। ঘটনার পরপরই আহতদের পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পাংশা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আতিয়ার রহমান জানান, জায়গা জমি ও পূর্ব দ্বন্দ্বের জের ধরে গত ২৩ শে সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৬টার দিকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে জোটবদ্ধ হয়ে প্রতিপক্ষের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে জাহিদুল ইসলাম বাবু, রফিকুল ইসলাম রফিক ও তারিকুল ইসলাম তারিক, মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আব্দুল মজিদ ও আইয়ুব আলী, আব্দুল মজিদের ছেলে মোস্তফা ও মনিরুল, বাবুর স্ত্রী মুক্তি, রফিকের স্ত্রী রিনা, তারিকের স্ত্রী মিষ্টি, মামুনের স্ত্রী তন্নি ও আব্দুর রহিমের স্ত্রী হাসিনা দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র, লোহার রড, বাঁশের লাঠি ও কাঠের বাটাম নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। গোলযোগ বাধলে উভয় পক্ষে মহিলাসহ ৬জন কমবেশি আহত হয়।

আতিয়ার রহমান অভিযোগ করে বলেন, জাহিদুল ইসলাম বাবু গং আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগবাটোয়ারা করা হয়েছে। বাড়ি ও মাঠের সব জমি হিসাব করে দেখা যায় তারা প্রাপ্য জমির চেয়ে অতিরিক্ত প্রায় ৩০/৪০ শতাংশ জমি জোরপূর্বক বেশি ভোগ দখল করছে। পাওনা জমি বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বললে তারা নানা টালবাহানা করে। বিভিন্ন সময় তারা ভয়ভীতি ও নানা হুমকিও প্রদর্শন করে। গত ২২ শে সেপ্টেম্বর বিকেলে প্রথমে গালাগালি করে। পরদিন ২৩ শে সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৬টার দিকে তারা পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালিয়ে আমার পরিবারের লোকজনকে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করে। এ ব্যাপারে আইনি প্রতিকার প্রত্যাশা করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *