ঢাকা অফিস : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ সারাদেশে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ছয়জন ও নারী ছয়জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ১১ জন এবং বেসরকারি হাসপাতালে একজন মারা যান। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৭ হাজার ৬৪৭ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুহার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

এর আগে সর্বশেষ ১৭ মার্চ এর চেয়ে কম মৃত্যুর খবর এসেছিল। সেদিন ১১ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি ও বেসরকারি ৮২১টি ল্যাবরেটরিতে ২২ হাজার ৩২১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করতে ৯৮ লাখ ৯১ হাজার ৬১৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো।

সর্বশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় নতুন ৬৬৩ জন রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৬০ হাজার ৮১৮ জনে দাঁড়ালো। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২ দশমিক ৯৭ শতাংশ।

দেশে গত বছরের অর্থাৎ ২০২০ সালের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার ভিত্তিতে শনাক্ত রোগীর হার ১৫ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৬৪ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ২১ হাজার ৭৭৭ জনে দাঁড়ালো। সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ১২ জনের মধ্যে বিশোর্ধ্ব একজন, চল্লিশোর্ধ্ব দুজন, ষাটোর্ধ্ব পাঁচজন, সত্তরোর্ধ্ব তিনজন এবং বাকি একজনের বয়স আশির বেশি।

এছাড়া সর্বশেষ মৃত ১২ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে চারজন, চট্টগ্রামে পাঁচজন, রাজশাহীতে একজন এবং খুলনায় দুজনের মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.