নিজস্ব প্রতিবেদক : কুষ্টিয়ার সরকারী অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নসহ উন্নয়ন প্রকল্পের তত্ত্বাবধায়নকারী প্রতিষ্ঠন এলজিইডি, গণপূর্ত, সড়ক ও জনপথ, শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগ, পানি উন্নয়ন বোর্ড স্বাস্থ্য সেবা খাতসহ সকল উন্নয়নক প্রকল্প বাস্তবায়নে আহ্বানকৃত দরপত্র কুক্ষিগত করে টেন্ডার সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রনের প্রধান ও আন্ডার ওয়ার্ল্ড এর শীর্ষ সন্ত্রাসী গণমুক্তি ফৌজের প্রধান আমিনুল ইসলাম ওরফে মুকুলের সেকেন্ড ইন কামান্ড একাধিক হত্যা মামলায় অভিযুক্ত সৈয়দ নুরে আলম ওরফে তারা বাবু(৪২)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার রাতে ঢাকাস্থ আদাবর এলাকা থেকে র‌্যাব-১২ সিপিসি-১ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল তারা বাবুকে আটক করেন বলে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান।

তিনি দেশ রূপান্তররকে জানান, গ্রেফতার তারা বাবু শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুলের সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে একদল স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনীর মাধ্যমে কুষ্টিয়ার সব কয়টি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ণকারী প্রতিষ্ঠানের টেন্ডার প্রক্রিয়াকে কুক্ষিগত করে কমিশন বানিজ্য করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেন। সেসব টাকা মানি লন্ডারিং করে বিদেশের পাচার করারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসী তারা বাবুকে ব্যাপকভাবে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় যে, সন্ত্রাসী মুকুল তার সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য উক্ত তার মাধ্যমে বিভিন্ন উঠতি বয়সী যুবক ও সন্ত্রাসীদের অস্ত্র সরবরাহ করে থাকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার নিয়ন্ত্রনে থাকা নিজ বাড়িতে গোপন স্থানে রক্ষিত শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুল এর অস্ত্রের ভান্ডারের কথা স্বীকার করে। পরবর্তীতে ধৃত সন্ত্রাসী সৈয়দ নূরে আলম @ তারা বাবু এর নিয়ন্ত্রনে থাকা পলাতক শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুল এর অস্ত্র ভান্ডারের খোঁজে ও তার সহযোগী পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষে আসামী সৈয়দ নুরে আলম @ তারা বাবু (৪২) কে নিয়ে কুষ্টিয়া সদর থানাধীন থানা পাড়াস্থ তার নিজ বাসভবন হতে ০১(এক) টি এসএমসি, ০১টি একনলা বন্দুক, ০১ (এক) টি ৭.৬৫ মি.মি পিস্তল, ০১ (এক) টি রিভলভার ও ১৮(আঠারো) রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আলামত সহ তাহার বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া জেলার কুষ্টিয়া মডেল থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পলাতক শীর্ষ সন্ত্রাসী গণমুক্তি ফৌজের প্রধান আমিনুল ইসলাম @ মুকুল এর সেকেন্ড ইন কমান্ড, একাধিক হত্যা মামলার আসামী সৈয়দ নূরে আলম @ তারা বাবু (৪২) কে ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার আদাবর রিং রোড হতে গ্রেপ্তার করে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তার অপর সহযোগীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসীকে ব্যাপকভাবে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় যে, সন্ত্রাসী মুকুল তার সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য উক্ত আসামীর মাধ্যমে বিভিন্ন উঠতি বয়সী যুবক ও সন্ত্রাসীদের অস্ত্র সরবরাহ করে থাকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে তার নিয়ন্ত্রনে থাকা গোপন স্থানে রক্ষিত শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুল এর অস্ত্রের ভান্ডারের কথা স্বীকার করে। পরবর্তীতে ধৃত সন্ত্রাসী সৈয়দ নূরে আলম @ তারা বাবু এর নিয়ন্ত্রনে থাকা পলাতক শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুল এর অস্ত্র ভান্ডারের খোঁজে ও তার সহযোগী পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষে ধৃত সন্ত্রাসী সৈয়দ নুরে আলম @ তারা বাবু (৪২) কে নিয়ে কুষ্টিয়া সদর থানাধীন থানা পাড়াস্থ তার নিজ বাসভবন হতে ০১(এক) টি এসএমসি, ০১টি একনলা বন্দুক, ০১ (এক) টি ৭.৬৫ মি.মি পিস্তল, ০১ (এক) টি রিভলভার ও ১৮(আঠারো) রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আলামত সহ তার বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া মডেল থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের পূর্বক তাকে থানায় সৌপর্দ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *