নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশব্যাপী বিভিন্ন স্থানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয় ও বাসস্থানে হামলা, ভাংচুর, হত্যা ও অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন কুষ্টিয়া জেলা শাখার আয়োজনে রবিবার এক সর্বাত্নক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিএমএ কুষ্টিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাঃ এএফএম আমিনুল হক রতন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাঃ আমিনুল হক রতন বলেন ধর্মের নাম দিয়ে সুযোগসন্ধানীদের এমন তাণ্ডব মানবতাবিরোধী। একটি স্বাধীন দেশে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে না। তিনি আরও বলেন এ আঘাত আমাদের ৫ হাজার বছরের ঐতিহ্য ও আভিজাত্যপূর্ণ সভ্যতার উপর আঘাত, এ আঘাত মুক্তি যুদ্ধের মধ্য দিয়ে গড়ে উঠা সকল চেতনার ভিত্তিমূলে আঘাত। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি স্বাধীনতা বিরোধী চক্রদ্বারা দেশে দাঙ্গা সৃষ্টি করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের গতিধারাকে ধ্বংস করতে চায়। এরা বারে বারে বাঙ্গালী জাতির চেতনার ভিত্তিমূলে আঘাত করেছে। ৭৫ এর ষড়যন্ত্রকারী, ২১ শে আগষ্টের বোমাহামলাকারী ও এবারে মন্দিরে হামলাকারী একই সূত্রে গাঁথা। এদের প্রতিহত করতে প্রশাসনিক পদক্ষেপের পাশাপাশি সাংস্কৃতিক আন্দোলন জোরদাড় করতে হবে।

মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ দিলদার হোসেন, ম্যাটসের অধ্যক্ষ ডাঃ হেলিশ রঞ্জন সরকার, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ আবদুল মোমেন, সিভিল সার্জন ডাঃ এস এম আনোয়ারুল ইসলাম, বিএমএ কুষ্টিয়া শাখার সহ-সভাপতি ডাঃ আশিষ কুমার দত্ত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডাঃ তাপস কুমার সরকার, বিপিএমপিএর সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আসমা জাহান লিজা, বিজ্ঞান সম্পাদক ডাঃ দেবাশীষ পাল, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডাঃ সালেক মাসুদ, সার্জারি বিভাগের প্রধান ডাঃ সুরেশ তুলসান প্রমুখ।

সভাপতিত্ব করেন বিএমএ কুষ্টিয়া শাখার সহ-সভাপতি ডাঃ আইয়ুব আলী এবং সঞ্চালনায় ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ রাজিব মৈত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published.