হেরোইন রাখার অভিযোগে আব্দুল সালাম নামের এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড। ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মেহেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ রায দেন। আব্দুস সালাম মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ধলা গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে।মামলার বিবরণে জানা গেছে ২০১২ সালের ১১ সেপ্টেম্বর গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মেহেরপুরের গাংনী র‍্যাব-৬ এর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে রামকৃষ্ণপুর ধলা গ্রামে আব্দুস সালামের বাড়িতে অভিযান চালান। এ সময় আব্দুস সালামকে আটক করার পর আব্দুস সালামের ঘরের সানসেট এর উপর থেকে ৪৫ গ্রাম হেরোইন,৪ রাউন্ড গুলিসহ একটি পিস্তল উদ্ধার করেন। ওই ঘটনায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন এর ১৯(১) ধারার টেবিল ১ (খ) ধারায় আব্দুস সালাম এবং খাসমহল গ্রামের কালাচাঁদের ছেলে আনারুলকে আসামি করে গাংনী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার সেশন কেস নং৭২/১৩। জি আর কেস নং ৬৩৬(ক)।মামলার মোট ১৪ জন সাক্ষী তাদের সাক্ষ্য প্রদান করেন। এতে আসামি আব্দুস সালাম দোষী প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড।১০ হাজার টাকা জরিমানা। অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন।মামলার অপর আসামি আনারুলের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত পিপি কাজী শহীদুল হক। এবং আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট কামরুল হাসান কৌশলী ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.