নিজস্ব প্রতিবেদক : সাম্প্রতিক সময়ে র‌্যাব কর্মকর্তা পরিচয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকুরী দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে একটি প্রতারক চক্র চাকুরী প্রত্যাশী যুবকদের নিকট হতে বিপুল পরিমান টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এমন অভিযোগ পাওয়ার পর র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ইং তারিখ দুপুর ০২.৩০ ঘটিকার সময় সিপিসি-১ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের একটি চৌকষ আভিযানিক দল “কুষ্টিয়া জেলার মডেল থানার অন্তর্গত কোর্টপাড়া রামচন্দ্র রায় চৌধুরী সড়কে অবস্থিত ধোঁয়া রেস্টুরেন্টে” একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে প্রতারক চক্রের তিন সদস্য ১। মোঃ সাইফুল ইসলাম (৩০), পিতা- মৃত আরব আলী শেখ, ২। মোঃ তাজন হোসেন (৩২), পিতা- মোঃ বদিয়ার রহমান, উভয় সাং- কালীনগর, উভয় থানা- শ্রীপুর, উভয় জেলা- মাগুরা এবং আসামী ৩। সাবান আলী ঘটক (৬৮), পিতা-মৃত শামসউদ্দিন প্রামানিক, সাং- বানিয়াপাড়া, থানা- কুমারখালী, জেলা- কুষ্টিয়া’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এর মধ্যে ১ ও ২ নং আসামী নিজেদের র‌্যাব কর্মকতা হিসেবে পরিচয় দিত। তারা এ কাজে ৩ নং আসামীকে ব্যবহার করে আসছিল। এ সময় আসামীদের নিকট হইতে ভুয়া র‌্যাব আইডি কার্ড-০১টি, মোবাইল ফোন-০৪টি, সীমকার্ড-০৬টি ও নগদ-৬৪৩৫/- টাকা উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে আসামীগণ তাদের নিজেদের অপরাধ স্বীকার করে। আসামীদের নিকট হতে জানা যায় যে, ঢাকা জেলার দক্ষিনখান থানার অন্তর্গত আশকোনার একটি কম্পিউটার দোকান হতে তারা র‌্যাবের ভুয়া আইডি কার্ড তৈরী করেছে। এরপর আসামীদের সঙ্গে নিয়ে ঢাকায় গিয়ে তাদের দেওয়া তথ্যানুযায়ী ঐ কম্পিউটার দোকানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ঐ দোকানের কম্পিউটার হতে দুটি ভূয়া র‌্যাবের পরিচয়পত্র, সেনাবাহিনীর ভুয়া নিয়োগপত্র, চাকুরী প্রাপ্তির ভুয়া এসএমএস, ০১টি মনিটর, ০২টি সিপিইউ, প্রিন্টার-০১টি, কীবোর্ড-০১টি, মোবাইল ফোন-০২ টি, সীমকার্ড-০৪ টি সহ ভুয়া র‌্যাব আইডি প্রস্তুতকারক ৪। এসএম জাহিদুল ইসলাম (২৮), পিতা- মৃত ইউনুস আলী, সাং- কাচকুরা, থানা- উত্তরখান, জেলা- ঢাকা এবং ৫। কাজী শাহীন (৩০), পিতা- মোঃ নুরুল ইসলাম, সাং- আশকোনা, থানা- দক্ষিন খান, জেলা- ঢাকা’ গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত আলামত সহ ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া জেলার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে কুষ্টিয়া জেলার কুষ্টিয়া মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, এই ধরণের প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযান সচল রেখে প্রতারক মুক্ত সমাজ গঠনে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া বদ্ধপরিকর। র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া’কে তথ্য দিন মাদক, অস্ত্র ও জঙ্গীমুক্ত বাংলাদেশ গঠনে অংশ নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.