মোঃ হাবিবুর রহমান, ॥ বিশ্বনন্দিত মানবতার মা বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ইউনিয়ন পর্যায?ে সকল উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে এক সংগ্রামী আওয়ামী লীগ নেতা যিনি বর্তমানে সদর উপজেলাধীন জিয়ারখী ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে অত্যন্ত সুনামের সাথে দায?িত্ব পালন করে আসছেন। আসন্ন ৬ নং জিয়ারখী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে তার নিজ ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের কাছে দোয়া প্রার্থী মোঃ শাহজাহান আলী শেখ। দীর্ঘ ৩৩বছরের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে একজন সংগ্রামী আওয়ামী লীগ নেতা ও সফল চেয়ারম্যান হিসেবে জাতীয় পর্যায়ে থেকে একাধিকবার পদক পুরস্কার এ ভূষিত হয়েছেন মোঃ শাহজাহান আলী শেখ। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে অত্যন্ত দক্ষতা ও সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করার স্বীকৃতিস্বরূপ বঙ্গবন্ধু সম্মাননা অ্যাওয়ার্ড২০২১ পদক এ ভূষিত হন। এছাড়াও তিনি সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য শেরেবাংলা গোল্ড মেডেল ২০২০, বাংলাদেশ বিবিসি বাংলা ফাউন্ডেশন সম্মাননা ২০২১ ,বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন অ্যাওয়ার্ড ২০২০, হিউম্যান রাইটস রিভিউ সোসাইটি ২০২১ পদক এ ভূষিত হয়েছেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে স্বীকৃতি স্বরূপ বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সম্মাননা পদক গ্রহণ করেন। জিয়ারখী ইউনিয়ন তথা সমগ্র কুষ্টিয়া জেলায় জনকল্যাণকর কর্মকাণ্ড ও মানব সেবায় বিশেষ ভূমিকা রাখার জন্য বি এমসিবি এর পক্ষ থেকে উপজেলা পরিষদের একজন সফল চেয়ারম্যান হিসেবে মানবাধিকার শাইনিং পার্সোনালিটি ও সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হন। দীর্ঘ ৩৩ বছরের রাজনৈতিক জীবন সংগ্রামের মাধ্যমে অতিবাহিত করেছেন। তিনি ১৯৮৮সালে মাত্র ১৬বছর বয়সে এরশাদ হটাও আন্দোলনের অংশগ্রহণ করেন এবং এরই ফলশ্রুতিতে তাকে ১১ মাস ডিটেনশনে রাখা হয়। তিনি ১৯৯২সাল থেকে ১৯৯৭সালে পর্যন্ত ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৯৮সাল হতে ২০০৩সাল পর্যন্ত জিয়ারখী ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং ২০০৩ সাল থেকে ২০০৭সাল পর্যন্ত গোপালপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে জনপ্রিয়তার জন্য ২০০৩সালে ৪ঠা মার্চ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী হিসেবে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হয়েছে ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ড ভুক্ত গোপালপুর গ্রামের ইউপি সদস্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০১৯সালের ২৬ অক্টোবর হতে বর্তমান পর্যন্ত জিয়ারখী ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি তার নিজ ইউনিয়নে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করার জন্য নারী মুক্তি উন্নয়ন সংস্থার আইন ও সালিশ কেন্দ্র ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বাল্যবিবাহ যৌতুক নিরোধ মাদক-বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন ২০০৫সাল থেকে ২০২১ সাল অবধি। বর্তমানে তিনি সদর থানা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সদস্য হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত আছেন।এছাড়াও তিনি নানা জনকল্যাণকর সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। ৬নং জিয়ারখী ইউনিয়নের সুশীল সমাজের প্রতিনিধি সূত্রে জানা যায়, জিয়ারখী ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে ও টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন করতে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মো:শাহজাহান আলী শেখ এর বিকল্প নেই বলে মনে করেন জিয়ারখী ইউনিয়নের সুশীল সমাজের প্রতিনিধি গন বিশিষ্ট সমাজসেবক অসাম্প্রদায়িক ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একজন আদর্শ সমাজ সংস্কারক রাজনীতিবিদ মোহাম্মদ শাহজাহান আলী শেখ এর জনপ্রিয়তার সিংহভাগ জনগণের কাছে রয়েছে তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে সমাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছেন এছাড়াও তিনি যুবসমাজকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী প্রচারনা করেছেন একাধিক বার। ব্যক্তিগত উদ্যোগে মানবকল্যাণে দৃষ্টান্তমূলক উন্নয়ন করেছেন তিনি যেমন ভূমিহীনদের বসতভিটা স্থাপনে জায়গা দেওয়া বেকারদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা দরিদ্র ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়ার খরচ বহন করা অসহায়দের চিকিৎসা খরচ প্রধান চার কন্যার বিবাহ উপলক্ষে সাহায্য প্রদান করা সহ নানা জনকল্যাণকর কার্য সম্পাদন করে আসছেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মো:শাহজাহান আলী শেখ বলেন ,দলীয় ভাবে আমি মনোনীত হলে বাংলাদেশ সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় ইউনিয়ন পর্যায়ে কাজ করে যাব এবং আমার নিজের ইউনিয়নের অধিকার বঞ্চিত মানুষের অধিকার বাস্তবায়ন করব এবং জনকল্যাণকর কাজ করাই আমার ধর্ম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.