ইউসুফ সুমন,মোংলা : মোংলায় ট্রলার ডুবে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে পশুর নদীর সিন্দুরতলা এলাকায় তুফানে ট্রলার ডুবে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, উপজেলার চিলা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা লিয়াকত শেখ পৌর শহর থেকে গাছ চেরাই করে ট্রলারে করে বাড়ীতে ফিরলেন। ট্রলারে লিয়াকত তার স্ত্রী ও পুত্রকে নিয়ে পশুর নদীর সুন্দরতলা এলাকার কাছাকাছি পৌঁছালেই প্রচন্ড ঢেউয়ের তোড়ে পড়েন। ওই সময় প্রচন্ড ঢেউয়ে ট্রলারটি উল্টে যায়। ট্রলারটি উল্টে যাওয়ার সময় লিয়াকতের আড়াই বছর বয়সের পুত্র রবিউল আউয়াল তার স্ত্রী পারভীন বেগমের কোলে ছিলো। ট্রলারটি উল্টে গেলে লিয়াকত ও ট্রলারের মাঝি ছিটকে নদীতে পড়ে যান। আর ট্রলারের ছাউনির মধ্যে থাকা মা পারভীন ও ছেলে রবিউল আটকে পড়েন। পরে সেখান থেকে মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার কিছুক্ষণের মধ্যেই মা পারভিন মারা যান। তবে এখনও জীবিত রয়েছেন ছেলেটি। তার অবস্থাও সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সিরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, ছেলেটির উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার জন্য বলা হয়েছে।
মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। যদিও ডুবে মারা গেছে, তারপরও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.