দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে জাসদ যুবজোট নেতা মাহাবুব খান সালাম খুনের ঘটনায় একইস্থানে জাসদ-যুবলীগ পাল্টা পাল্টি কর্মসূচী ঘোষণা করায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে উভয় দল তা প্রত্যাহার করেছে। সন্ত্রাসী হামলায় যুবজোট নেতা মাহাবুব খান সালাম খুনের প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে সোমবার বেলা ১১টায় দৌলতপুর জাসদ উপজেলা পরিষদ চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশরে ডাক দেয়। এদিকে সালাম হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাদের নাম জড়ানোর প্রতিবাদে একই স্থানে দৌলতপুর যুবলীগ বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিয়ে মাইকিং করে। বিষয়টি দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন ও দৌলতপুর থানা পুলিশের নজরে আসলে উভয় দলের নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলার পর দুই দলের নেতৃবৃন্দ নিজ নিজ দলে কর্মসূচী প্রত্যাহার করে নেন। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে গতকাল সোমবার দিনভর উপজেলা পরিষদ চত্বরে দৌলতপুর থানা পুলিশের অবস্থান ও টহল জোরদার ছিল।

কর্মসূচীর বিষয়ে কেন্দ্রীয় যুবজোটের সাধারণ সম্পাদক ও দৌলতপুর জাসদের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবীর স্বপন জানান, দৌলতপুর যুবজোটের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব খান সালাম খুনের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে প্রশাসনকে অবগত করে বেশ কয়েকদিন আগে কর্মসূচী ঘোষণা করেছিলাম। হঠাৎ করে রোববার সন্ধ্যায় একইস্থানে দৌলতপুর যুবলীগ কর্মসূচী ঘোষণা করে মাইকিং করে। অপ্রীতির ঘটনা এড়াতে প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের কর্মসূচী প্রত্যাহার করেছি।

একইস্থানে যুবলীগের কর্মসূচীর বিষয়ে দৌলতপুর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের জানান, জাসদের কর্মসূচীর বিষয়টি আমাদের জানা ছিলনা। আমাদের কর্মসূচীর মাইকিংয়ের পর জানতে পারি জাসদের কর্মসূচীর কথা। পরে দৌলতপুর থানার ওসি’র নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের কর্মসূচী প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

একইস্থানে উভয়দলের পাল্টাপল্টি কর্মসূচীর বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি এস এম জাবীদ হাসান বলেন, উভয়দলের নেতাদের সাথে কথা বলার পর তারা নিজ নিজ কর্মসূচী প্রত্যাহার করে নিয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.