রাজবাড়ী প্রতিনিধি : হঠাৎ করে পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় দক্ষিণ প্রবেশদ্বার খ্যাত দৌলতদিয়া পাটুরিয়া নৌরুটে রাত১২ টার দিকে ৪ ও ৫ নং ফেরি ঘাটের পল্টুন পানির নিচে ডুবে গেলে যানবাহন লোড আনলোড বন্ধ হয়ে গেলে মহাসড়কে পণ্যবাহি ট্রাক ওপরিবহনে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়।
সরেজমিনে দেখা যায়, হঠাৎ করে পদ্মায় পানি বাড়ায় দৌলতদিয়া ৫ টি ফেরি ঘাটের মধ্যে ৪ও৫ নং ফেরি ঘাট ২ টি  পানির নিচে ডুবে যাওয়ায় দুটি ঘাটে যানবাহন লোড আনলোড বন্ধ হয়ে দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট হতে  ঢাকা খুলনা মহাসড়কের পদ্মার মোড় পর্যন্ত ৬ কিলোমিটার জুড়ে  পন্যবাহি ট্রাক ও গন পরিবহনের দীর্ঘ  সারি সৃষ্টি হওয়ায় দুভৌগ পোহাতে হচ্ছে চালক সহ যাত্রীদের।
ঘাট থেকে ১৩ কিলোমিটার অদুরে গোয়ালন্দ মোড়ে আটকে আছে ২৫০ টি পন্যবাহী ট্রাক।
এদিকে রাতে কালবৈশাখী ঝড়ের কারনে এক ঘন্টা ফেরি চলাচল বন্ধ রাখে ঘাট কতৃপক্ষ।
দৌলতদিয়া ৫ নং ফেরি ঘাটের পল্টুনের পাশে  কেরামত স্টোরের মালিক কেরামত বলেন, আমার জীবনে এধরনের পদ্মা নদীতে পানি বাড়ায় নজির দেখিনি। কাল রাত ১১ টার দিকে আমি দোকানে বসে আছি এমন সময় দেখতে পাই আমার দোকান পানিতে ডুবে যাচ্ছে  আমি তাড়া তাড়ি করে বাড়ীতে ফোন দিয়ে ছেলেদের ডেকে এনে দোকান ঘর ভেঙে সরি নেয়।
এদিকে আরেক মুদি দোকানদার উজ্জাল হোসেন বলেন,  আমি রাত ১১ টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়ীতে চলে যাই। ভোরে দিকে ঘাটে এসে দেখতে পাই আমার দোকানটি পানিতে ডুবে গেছে। তাড়াতাড়ি করে ঘোড়ার গাড়ি ভাড়া করে পানির মধ্যে নেমে দোকানে মালামাল ঘোড়ার গাড়িতে করে সরে ফেলি পরে দোকান ঘরটি ভেঙে বাড়িতে নিয়ে যায়।
দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহকারি ব্যবস্থাপক মো. নাছির  উদ্দিন বলেন, নদীতে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায়  ঘাট দুটি ডুবে যায়। ঘাট দুটি সচল করার জন্য কাজ চলছে আশা করি বিকেলের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে। এই নৌরুটে  ছোট বড় ২১ টি ফেরি চলাচল করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.