জুয়েল রানা
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফার্মেসি বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (২৩ মে) বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান ফটক সংলগ্ন ব্রাদার্স হাউজ মেসের নিজ রুমে সিলিং ফ্যানের রড়ে রশি ঝুলিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। তারা জানান, ইবি থানা পুলিশ বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করেন।

আত্মহত্যাকারী ওই শিক্ষার্থীর নাম আবিদ বিন আজাদ। রাজশাহী জেলার চারঘাট থানায় আরজি ভাটপাড়া গ্রামে। তার পিতার নাম জহুরুল হক পরামানিক।

আবিদের রুমমেট ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সাব্বির জানায়, সকাল ৯টায় তার সাথে আমার সাথে কথা হয়েছে। তারপর আমি ক্লাসে চলে যাই। ক্লাস শেষ করে ক্যাম্পাস থেকে খাওয়া দাওয়া করে, আমি শেখ পাড়া বাজারে চুল কাটাতে গিয়েছিলাম। তারপর রুমে এসে ডাকাডাকি করে কোনো সাড়া না পেয়ে, আমি রুমের ঐপাশের জানালা দিয়ে দেখি লাশ ঝুলছে। এরপর সবাইকে ডাকাডাকি করি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সাব্বিরের ডাকাডাকিতে আমরা ঐ পাশের জানালা দিয়ে আবিদের মরদেহ দেখতে পাই। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ইবি থানা পুলিশের উপস্থিতিতে ড্রিল মেশিন দিয়ে দরজা কেঁটে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ওই মেসে গিয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক কাজ শেষে লাশটিকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হচ্ছে। ময়নাতদন্ত শেষে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মাধ্যমে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

প্রক্টর প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, এরকম ঘটনা সত্যিই দুঃখজনক। আমি তার পরিবারকে বিষয়টি জানিয়েছি। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে গেছে। ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.