মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ী জেলার পাংশা পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের মৈশালা তাতিপাড়া এলাকাস্থ ট্রাকচালক লিটন কুমার কুন্ডুর বাড়িতে রহস্যজনক আগুনের নেপথ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সোমবার দিবাগত গভীররাতে আগুনে লিটন কুন্ডুর বাড়ির টিনশেড ওয়াল করা ঘর, ঘরে রক্ষিত আসবাবপত্র ও মালামাল সব পুড়ে যায়। পরিবারের লোকজনের পরিধেয় কাপড় ছাড়া অবশিষ্ট কিছুই নাই। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন অসহায় হয়ে পড়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার পাংশা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুমন কুমার সাহা, পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান, পাংশা পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাংশা পৌরসভার প্যানেল মেয়র ওদুদ সরদার, বাহাদুরপুর ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাহাদুরপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির শাকিল, পাংশা উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ উত্তম কুমার কুন্ডু, পাংশা উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোবিন্দ কুন্ডু, পাংশা পৌরসভা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত কুমার দে ও সাধারণ সম্পাদক গৌতম বসাক, রাজবাড়ী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহসভাপতি সুব্রত কুমার দাস সাগর ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার কুন্ডু, পাংশা উপজেল পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার সরকার, পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা অনিল বিশ্বাস, অসিত কুমার কুন্ডু, লিটন কুমার বিশ্বাস, উত্তম কুমার সাহা (কার্তিক সাহা), মহনলাল আগরওয়ালা, গোলক কুমার কুন্ডু, চন্ডিচরণ ঘোষ, প্রবীর কুন্ডু প্রমূখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পাংশা উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি উত্তম কুমার কুন্ডু বলেন, লিটন কুন্ডুর বাড়িতে রহস্যঘেরা আগুনের নেপথ্য উদঘাটন করতে হবে। এটি অগ্নিকান্ড নাকি নাশকতা তা খুজে বের করতে হবে। এক্ষেত্রে পুলিশ প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

উত্তম কুন্ডু আরও বলেন, আমরা প্রাথমিক ভাবে জেনেছি বাড়ির ভিতরে আগুন লাগে। ঘটনার সময় ঘরের বাইরে ছিটকানী লাগানো ছিল। পরিবারের লোকজনের চিৎকারে প্রতিবেশিদের কেউ ঘরের ছিটকানী খুলে দেয়। ফলে তারা জীবনে বেঁচে গেলেও ঘরের ৫টি কক্ষের আসবাবপত্রসহ সব মালামাল পুরে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, কারো সাথে তাদের কোন দ্বন্দ্ব-সংঘাত নেই। তবে আগুনের ঘটনায় তদন্ত দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.