মোক্তার হোসেন, পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি ঃ রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবতা। এটি আর কল্পনা নয়। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বর্তমান সরকার জনগণের দোরগোড়ায় তথ্য সেবা পৌঁছে দিতে বিভিন্ন ধরণের তথ্য ও সেবা ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজেশন করছে। ডিজিটাল কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে পৃথিবী। আমরাও পিছিয়ে নেই। অগ্রগতির পেছনে রয়েছে সরকার ও তরুণদের নানা উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা। বুধবার ১৫ জুন সকালে পাংশা উপজেলা পরিষদ হলরুমে প্রধানমন্ত্রীর ১০টি উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে উপজেলা পর্যায়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের অপেক্ষায়। দেশের সকল মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করাসহ দারিদ্র্য ও ক্ষুধা মুক্তি, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা ও সামাজিক নিরাপত্তার বিষয়কে অগ্রাধিকার দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন সময়ে প্রয়োজনের নিরিখে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প, ডিজিটাল বাংলাদেশ, শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচি, নারীর ক্ষমতায়ন, সবার জন্য বিদ্যুৎ, কমিউনিটি ক্লিনিক ও শিশুর মানসিক বিকাশ, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি, পরিবেশ সুরক্ষা ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির উদ্যোগ ভিশন ২০২১ অর্জনসহ দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। তিনি বলেন, ভিশন ২০২১ এর অভিজ্ঞতার আলোকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভিশন ২০৪১ ঘোষণা করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগসমূহের সঠিক এবং আরো কার্যকর বাস্তবায়ন ভিশন ২০৪১ অর্জনে এবং জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ২০৩০ অর্জনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এক্ষেত্রে উদ্যোগসমূহের নিয়মিত পরিবীক্ষণের পাশাপাশি বাস্তবায়ন চ্যালেঞ্জ এবং নতুন সম্ভাবনা চিহ্নিত করা প্রয়োজন। বাস্তবায়ন চ্যালেঞ্জ এবং নতুন সম্ভাবনা চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে স্থানীয় অংশীজনদের মতামত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। স্থানীয় পর্যায়ে উদ্যোগসমূহের বহুল প্রচারের মাধ্যমে সরকারের গৃহীত কার্যক্রমকে জনসাধারণের মধ্যে পরিচিত করার গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ আলীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, পাংশার এসিল্যান্ড নুজহাত তাসনীম আওন, পাংশা পৌরসভার মেয়র মোঃ ওয়াজেদ আলী, পাংশা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান, পাংশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাছপাড়া ইউপির বারবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান খোন্দকার সাইফুল ইসলাম (বুড়ো), পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

কর্মশালায় কী-নোট পেপার উপস্থাপক ছিলেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খান এবং রাজবাড়ী জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাঃ জাহাঙ্গীর আলম বাবু। ফ্যাসিলিটেটর ছিলেন পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ আলী, পাংশার এসিল্যান্ড নুজহাত তাসনীম আওন, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. প্রভাস চন্দ্র সেন ও পাংশার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দপ্তরের সহকারী প্রোগ্রামার মাহাবুবা আক্তার।

অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন পাংশা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল কুমার বিশ্বাস। ৫০জনের একটি ব্যাচ প্রধানমন্ত্রীর ১০টি উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে উপজেলা পর্যায়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে। গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের সহযোগিতায় পাংশা উপজেলা প্রশাসন এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে। কর্মশালায় প্রধান অতিথি রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক আবু কায়সার খানকে পাংশা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক ক্রেস্ট উপহার প্রদান করা হয়। আলোচনা ও গ্রুপ ওয়ার্কের মধ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.